প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]জয় দিয়ে আইপিএল শুরু করল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স

রাহুল রাজ :[২] এবি ডিভিলিয়াস যখন আউট হয়ে সাজ ঘরে ফিরছিলেন তখনো ভিরাটদের দরকার ২ বলে ২ রান। বেশ উত্তেজোনা খেলার শেষ পরিনতি শেষ বলেই সমাপ্ত হয়। মোহাম্মদ সিরাজের ব্যাট থেকে জয় সূচক রান এলে ব্যাঙ্গালোরুর বুকে আটকে থাকা নিশ্বাস আনন্দে বেরিয়ে আসে। রয়্যালের জয়ের পথটা মোটেও সহজ ছিল না।
[৩] শেষ ১৯ বলে দরকার ছিল ৩৮ রান। ক্রিজে ছিলেন মিস্টার ৩৬০। ১৯ তম ওভারে বুমরাকে নাকানি-চুবানি খাইয়ে জয়ের সমিকরন সহজ করে ফেলেন ৪৮ রান করা এবি। ১৬০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ২ উইকেটে জয় নিজেদের করে এবারের আইপিএল শুরু করল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স। এর আগে শেষ ওভারে ১ রানে ৪ উইকেট; প্রথম ম্যাচেই ইতিহাস গড়লেন হার্শাল প্যাটেল। আইপিএল ইতিহাসে নিজেদের প্রথম ম্যাচে কখনই জয় পায়নি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।
[৪]টসে হেরে শুক্রবার ৯ এপ্রিল ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা দারুণ করে মুম্বাই। কিন্তু শেষদিকে ডেথ ওভারে ব্যবধানটা ঘড়ে দিয়েছেন হার্শাল প্যাটেল। অসাধারণ বোলিং করে পাঁচ উইকেট নিয়ে আইপিএলের কোন আসরের প্রথম ম্যাচেই পাঁচ উইকেট নেওয়া প্রথম বোলার হিসেবে ইতিহাসও গড়েছেন হার্শাল। একই সাথে পাঁচ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে প্রথম বোলার হিসেবে পাঁচ উইকেট নেওয়ার রেকর্ডও গড়েন ব্যাঙ্গালুরের এই বোলার।
[৫]নিজের কোটার প্রথম তিন ওভারে ২ উইকেট নিয়েছিলেন হার্শাল প্যাটেল। ৩ ওভার শেষে বোলিং ফিগার ছিল ৩-০-২৬-২। সেখান থেকে ৪ ওভার শেষে তার বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ৪-০-২৭-৫ এ!
[৬]শেষ ওভারে প্রথম দুই বলেই জানসেন ও রাহুল চাহারকে ফিরিয়ে হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগান প্যাটেল। কিন্তু অল্পের জন্য হ্যাটট্রিক হয়নি। তবে চতুর্থ বলেই আবারো উইকেট নেন। শেষ বলে এক রান হলেও রান আউটে পড়ে আরো এক উইকেট। শেষ ওভারটিতে ১ রানে মুম্বাই ৪ উইকেট হারায়। শেষ পর্যন্ত কোহলিদের ১৬০ রানের লক্ষ্য দিতে সমর্থ হয় রোহিতের দল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত