প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মঈন আলীর কাছে ক্ষমা চাইলেন রুট

স্পোর্টস ডেস্ক: [২] ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে দারুণ পারফরম্যান্স করার পরও শেষ দুই টেস্টের দল থেকে বাদ পড়তে হয়েছে ইংলিশ অলরাউন্ডার মঈন আলীকে। আর দল ঘোষণার পর সংবাদ সম্মেলনে এসে জো রুট জানিয়েছিলেন, পরিবারকে সময় দিতেই ইংল্যান্ডে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মঈন। তবে নিজের করা এমন মন্তব্যের পর মঈনের কাছে ব্যক্তিগতভাবে ক্ষমা চেয়েছেন রুট। – ক্রিকবাজ

[৩] পরিবারকে সময় দিতে নয়, মূলত ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) ‘রোটেশন পলিসির’ কারণেই দেশে ফেরত যাচ্ছেন এই ইংলিশ অলরাউন্ডার। মঈনের দল ছাড়া প্রসঙ্গে ইংল্যান্ড দলের পক্ষ থেকে দেওয়া এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে এমনটাই জানানো হয়েছে।- ইসিবি

[৪] অবশ্য এই ব্যাপারে জানতেন না এই ইংলিশ অধিনায়ক। সংবাদ সম্মেলনে মঈনের শেষ দুই টেস্টে দলে না থাকা প্রসঙ্গে রুট বলেছিলেন, এটা মঈনের সিদ্ধান্ত ছিল এবং দলের যেকোন খেলোয়াড় যেকোন সময়ে তাঁদের নিজস্ব সিদ্ধান্তে দলের জৈব সুরক্ষা বলয় ভেঙে বের হতে পারে। রুটের এই মন্তব্যের পর কড়া সমালোচনার শিকার হন ইংলিশ অলরাউন্ডার। দলের বিপদের সময়ে দেশে ফেরত যাওয়ার সিদ্ধান্তকে কেউই ভালভাবে নেয়নি।

[৫] অবশ্য রুট নিজের ভুল বুঝতে পারে হোটেল রুমে ফিরে। দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত যে মঈনের নয়, বরং টিম ম্যানেজমেন্টের এই কথা জানার পরেই মঈনের সঙ্গে দেখা করে ক্ষমা চান তিনি। রুট জানান যে, মঈনের দল ছাড়া এবং দলের প্রতি তাঁর অবদানের ব্যাপারে মিডিয়াকে পরিষ্কারভাবে বোঝাতে সক্ষম হননি। এছাড়া দলের রোটেশন পদ্ধতির প্রতিও তাঁর পূর্ণ সমর্থন রয়েছে বলে জানান রুট।

[৬] লম্বা সময় ধরে জৈব সুরক্ষা বলয়ে থেকে খেলোয়াড়রা যেন হাঁপিয়ে না ওঠে এজন্যই ‘রোটেশন পলিসি’ মেনে চলছে ইসিবি। এই পদ্ধতিতে একটি নির্দিষ্ট সময় পরপর কিছু খেলোয়াড়দের বিশ্রামের সুযোগ দেওয়া হবে। শুধু মঈন নয়, এমন পরিকল্পনার অংশ হিসেবে দেখা গেছে বেন স্টোকস, জস বাটলার, জোফরা আর্চারদের মতো ক্রিকেটারদেরও।

[৭] প্রথম টেস্টে সুযোগ না পেলেও দ্বিতীয় টেস্টে বল হাতে ৮ উইকেট শিকারের পাশাপাশি ব্যাট হাতে দ্বিতীয় ইনিংসে সর্বোচ্চ রান করেন তিনি। তবে দলের পূর্ব পরিকল্পনার অংশ হিসেবে মইনকে ১০ দিনের বিশ্রামে ইংল্যান্ডে পাঠানো হয়। যদিও আসন্ন টি-টুয়েন্টি সিরিজের জন্য চলতি মাসের শেষের দিকে আবারও দলে ফিরবেন তিনি। – ক্রিকইনফো

সর্বাধিক পঠিত