প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কামরুল হাসান মামুন: শিক্ষাখাতে, বিশেষ করে উচ্চশিক্ষাখাতে বরাদ্দের প্রশ্ন এলেই সরকার অনাথ গরিবে পরিণত হয়!

কামরুল হাসান মামুন: গত ছয় বছরে সরকার ৬২ হাজার কোটি টাকা কেবল বেসরকারি বিদ্যুৎকেন্দ্রের কেন্দ্র ভাড়া দিয়েছে যেইগুলোর পূর্ণ সক্ষমতার ৩০ শতাংশও চালানো সম্ভব হয়নি। অর্থাৎ বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো অলস বসিয়ে ৪৫ হাজার কোটি টাকা দিয়েছে। এসব টাকা দিয়ে সামিট গ্রুপের আজিজ খান সিঙ্গাপুরের বসে বসে বিত্তশালী হওয়া এই চক্রের একজনতো সিঙ্গাপুরের মতো ধনী দেশেরও সেরা ধনীতে পরিণত হয়েছে। সরকার বুঝে গেছে দলের মাঝে যতো বেশি লুটেরা ধনী থাকবে দল ততই শক্তিশালী হবে। আমাদের এক সাবেক ক্রিকেটার প্লাস বর্তমান সংসদের এমপি যার দুর্নীতির কাহিনি এখন প্রতিদিনের সংবাদের একটি অংশ তিনিও নাকি বিদ্যুৎকেন্দ্রের মালিক। গত দুই বছরে ১১ হাজার কোটি টাকা কেবল সুইস ব্যংকেই পাচার হয়েছে প্রায় ১১ হাজার কোটি টাকা।

দেশ থেকে পণ্য রপ্তানি আয়ের ১৭ বিলিয়ন ডলার বা ১ লাখ ৪২ হাজার কোটি টাকা গায়েব হয়ে গেছে। এর মধ্যে ৪০ হাজার কোটি টাকার কোনো হিসাবই নেই। এইসব শুনলে মনে হয় দেশে টাকা আকাশে বাতাসে ভাসছে। সরকার প্রায়ই বলে আমাদের অর্থনীতি ক্যানাডা থাইল্যান্ডের অর্থনীতির সমান এবং শীঘ্রই আমরা উন্নত দেশে পরিণত হব। অথচ প্রায় ৫৩টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য সরকার বরাদ্দ দিয়েছে মাত্র ৮ হাজার ৫০০ কোটি টাকার মতো যা Guinness book of world records-এ স্থান পাবে নিশ্চিত। মানে শিক্ষাখাতে বিশেষ করে উচ্চশিক্ষাখাতে বরাদ্দের প্রশ্ন আসলেই সরকার অনাথ গরিবে পরিণত হয়। মানুষ যদি উন্নত মানের না হয় শুধু টাকায় উন্নত হয়ে কী লাভ আছে? সুখ আসবে? মানুষ উন্নত না হলে দেশের এনট্রপি বাড়বে, চোর ডাকাত দুর্নীতিবাজ বাড়বে এবং এইগুলোতো বাড়ছেই। ফেসবুক থেকে

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত