প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এক সিরিজেই ছয় রেকর্ড ফখর জামানের

স্পোর্টস ডেস্ক : চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে ভারতের বিরুদ্ধে বিধ্বংসী ইনিংস খেলে ক্রিকেটবিশ্বে তাক লাগিয়ে দেওয়া ফখর জামান এখন রেকর্ড ঝুলিতে নিয়ে ঘুরতে পারবেন। জিম্বাবুয়ে সফরে রেকর্ডের বৃষ্টি ঝরেছে পাকিস্তানের ওপেনার ফখর জামানের ব্যাটে। ওয়ানডে ক্রিকেটে দ্রুততম ১ হাজার রান, পাকিস্তানের হয়ে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি, দুই আউটের মাঝে সবচেয়ে বেশি রান, ওপেনিং জুটিতে সর্বোচ্চ রান, পাকিস্তানের হয়ে যে কোন জুটিতে সর্বোচ্চ রান। এরকম অনেকগুলো রেকর্ড গড়েছেন একদিনের সিরিজে।

চলতি সিরিজের আগের ম্যাচে প্রথম পাকিস্তানি হিসেবে ‘ডাবল সেঞ্চুরি’ তুলে নিয়েছিলেন ফখর জামান। আজ সিরিজের শেষ ম্যাচে ৩৮ বছরের পুরোনো এক রেকর্ড ভেঙেছেন পাকিস্তানের এ ওপেনার। ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে দ্রুততম ১ হাজার রানের রেকর্ড এখন ফখরের। কীর্তিটি গড়ার পথে তিনি পেছনে ফেলেছেন ভিভ রিচার্ডসের মতো কিংবদন্তিকে। এ ছাড়াও রেকর্ড বৃষ্টি ঝরেছে ফখরের ব্যাটে!

প্রতিপক্ষের ঘরের মাঠে পাঁচ ম্যাচের এই সিরিজে আগেই ৪-০ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল পাকিস্তান। বুলাওয়েতে আজ ম্যাচের ষষ্ঠ ওভারে চাতারাকে পয়েন্ট দিয়ে চার মেরে ভিভের রেকর্ডটি ভেঙে ফেলেন ফখর। ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই কিংবদন্তি ১৯৮০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২১তম ইনিংসে দ্রুততম ১ হাজার রানের রেকর্ডটি গড়েছিলেন।

ভিভ সেই রেকর্ড গড়ার পর ২১তম ইনিংসে এসে ১ হাজার রানের মাইলফলক ছুঁয়েছেন আরও চারজনÑ পিটারসেন, ট্রট, ডি কক ও বাবর আজম। ৩ ইনিংস ব্যবধানে মাইলফলকটি ছুঁয়ে সবাইকে পেছনে ফেলেছেন ২৮ বছর বয়সী এ ব্যাটসম্যান। সিরিজে ফখর-কীর্তির এখানেই শেষ নয়। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে এখন ফখরের রানসংখ্যাই সর্বোচ্চ। ৫ ম্যাচে তাঁর রানসংখ্যা ৫১৫। এই পথে তিনি ভেঙেছেন ২০০৯ সালে গড়া হ্যামিল্টন মাসাকাদজার ৪৬৭ রানের রেকর্ড।

এই সিরিজে শুধু প্রথম আর শেষ ম্যাচেই ফখরকে আউট করতে পেরেছে জিম্বাবুয়ে। এরপর মাঝে তিন ম্যাচে তাঁর স্কোর যথাক্রমেÑ১১৭*, ৪৩* ও ২১০*। অর্থাৎ তিন ম্যাচেই অপরাজিত! সঙ্গে আজ আউট হওয়ার আগের স্কোরটা (৮৫) যোগ করে ফখর টপকে গেছেন মোহাম্মদ ইউসুফের এক অনন্য রেকর্ডকে। পাকিস্তানের সাবেক এই ব্যাটসম্যান ২০০২ সালে আউট হওয়ার পর থেকে পরেরবার আউট হওয়ার মাঝে সর্বোচ্চ ৪০৫ রানের রেকর্ড গড়েছিলেন। আর সেই রেকর্ড ভেঙ্গে ফখর দুই আউটের মাঝে সংগ্রহ করেছেন ৪৫৫ রান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ