প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিসিবির নির্বাচন, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন দুর্জয়-টিটু!

দুর্জয়-টিটু

হাসান তাকী : [২] নির্বাচনের চল থাকলেও সেই জৌলুশ আর উত্তাপ সাম্প্রতিক সময়ে লক্ষ্য করা যায় না। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের নির্বাচন নিরুত্তাপ হবে এমনটা ভেবে রেখেছিলেন অনেকেই। তবে দৃশ্যপট বদলেছে এবার। শুরুর সেই ভাবনায় পরিবর্তন করতে হচ্ছে।

[৩] ইতোমধ্যে ব্যালট পেপার থেকে শুরু করে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন। এরই মাঝে নির্বাচন থেকে সরে আসার ঘোষণা দিয়েছেন আরও একজন। যদিও নির্ধারিত সময়ে প্রত্যাহার না করায় তা আমলে নিবে না নির্বাচন কমিশন।

[৪] এবারের নির্বাচনে ক্যাটাগরি-১ থেকে পাঁচ বিভাগে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন সাতজন। ঢাকা ও রাজশাহীতে নির্বাচন জমজমাট হওয়ার কথা থাকলেও ঢাকা বিভাগে তা আর হচ্ছে না। চারজনের মধ্যে দুজনের নাম প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়ায় বাকি দুজনই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন। যদিও ৩০ সেপ্টেম্বরের পর মনোনয়ন প্রত্যাহার আমলে নিবে না কমিশন। তবে বুথে তাদের মার্কা ঠিকই থাকবে।

[৫] ঢাকা বিভাগে দুই পদের বিপরীতে শুরুতে চারজন মনোনয়ন সংগ্রহ করেছিল। নাইমুর রহমান দুর্জয়, তানভীর আহমেদ টিটু, সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু এবং খালিদ হোসেন। এদের মধ্যে সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু এবং খালিদ হোসেন ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে নির্বাচন থেকে নাম প্রত্যাহারের আবেদন জানিয়েছেন। তবে নির্ধারিত সময় পার হওয়ায় তা আমলে নিচ্ছে না কমিশন।

[৬] এ বিষয়ে বিসিবির পরিচালক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটুও প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করার কথা জানিয়ে ঢাকা বিভাগের কাউন্সিলরদের কাছে টেলিফোনে বলেন, ‘আমি ভোটাভুটিতে থাকছি না। আমাকে আর ভোট দেওয়া দরকার নেই।’ ঢাকা বিভাগের একাধিক কাউন্সিলর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

[৭] এদিকে মাদারীপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার মনোনীত কাউন্সিলর হিসেবে ঢাকা বিভাগের নির্বাচনে মনোনয়ন তোলা ও জমা দেওয়া খালিদ হোসেন তো আগেই সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

[৮] এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ ইকরামুক হক গণমাধ্যমকে বলেন, অনিবার্য কারণ দেখিয়ে সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু আজ মঙ্গলবার নাম প্রত্যাহার করে চিঠি দিয়েছেন। তবে নির্বাচন হবে। ভোট হওয়ার পর গণনা করে যেটা হবে সে অনুযায়ী ফল হবে।

[৯] বিসিবির বিগত ২টি নির্বাচনের মতো এবারও ভোটযুদ্ধে অবতীর্ন হতে হয়েছিল বাংলাদেশের অভিষেক টেস্ট অধিনায়ক নাইমুর রহমান দুর্জয়কে। ঢাকা বিভাগের ২টি পরিচালক পদে ১৮টি ভোট নিয়ে চরম উৎকণ্ঠায় ছিলেন মানিকগঞ্জের এই সংসদ সদস্য। গত ৩ অক্টোবর মাদারীপুর জেলার কাউন্সিলর খালিদ হোসেন প্রার্থীতা প্রত্যাহার করলে কিছুটা স্বস্তি পান তিনি।

[১০] তারপরও বিসিবির সর্বশেষ পরিচালনা পরিষদের সদস্য সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম এবং তানভীর টিটুর সঙ্গে ভোটযুদ্ধ নিয়ে দুর্জয় সমর্থকরা ছিল উদ্বিগ্ন। নির্বাচনের আগের রাতে কেটেছে সেই উৎকণ্ঠা। কিশোরগঞ্জের সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম তার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো ঢাকা বিভাগ থেকে বিসিবির পরিচালক হচ্ছেন নাইমুর রহমান দুর্জয়।

[১১] গতবারের নির্বাচনে বিজিত প্রার্থী নারায়নগঞ্জের তানভীর টিটু বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে প্রথমবারের মতো বিসিবির পরিচালক হচ্ছেন। ঢাকার ক্লাব ক্যাটাগরি টু-তে পাপন সমর্থিত প্যানেলে জায়গা হচ্ছে না জেনে মঙ্গলবার রাতে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেছেন মোহামেডানের ক্রিকেট কমিটির সেক্রেটারি মাসুদুজ্জামান । এ তথ্য দিয়েছেন মোহামেডান ক্রিকেট কমিটির এক সদস্য।বুধবার বিসিবি নির্বাচন, ঘুরে ফিরে নতুন মুখ ৬ জন!

[১২] মোহামেডান হকি কমিটির চেয়ারম্যান মনজুর আলম এই প্যানেল থেকে নির্বাচিত হয়ে আসছেন। ক্লাব কোটায় ১২টি পরিচালক পদে ১৭ জন প্রার্থীতা দাখিল করেছিলেন। পরবর্তীতে বিসিবির গত ২ মেয়াদের পরিচালক শওকত আজিজ রাসেল মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করলে ১৬ জনে নেমে আসে প্রার্থী সংখ্যা। তিন প্রার্থী ডিওএইচএস-এর সাইফুল ইসলাম,মিরপুর বয়েজের আব্দুর রহমান এবং মোহাম্মদ গাজী টায়ার্স ক্রিকেট একাডেমীর রফিকুল ইসলাম বিসিবির নির্বাচন থেকে সরে যেতে প্রস্তুত বলে প্যানেল সমর্থিতরা জানিয়ে দেয়ায় কার্যত ক্যাটাগরি-২ এ নির্বাচনের প্রয়োজন পড়ার কথা নয়।

[১৩] পাপন সমর্থিতরা বিনা বাধায় নির্বাচিত হয়ে গেছেন এই ক্যাটাগরিতে,তা বলাই বাহুল্য। আজ (বুধবার) বিসিবির পরিচালনা পরিষদের নির্বাচন হবে শুধু ২টি পরিচালক পদে। ৪টি জেলা ক্রীড়া সংস্থার মনোনীত প্রতিনিধির ভোট নিশ্চিত করে সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাসুদ পাইলটকে বিপদে ফেলেছেন বিসিবির বর্তমান পরিচালক শফিকুল ইসলাম চৌধুরী স্বপন। নির্বাচন হবে ক্যাটাগরি থ্রি-তে খালেদ মাহমুদ সুজন এবং নাজমুল আবেদিন ফাহিমের মধ্যে।

[১৪] বিসিবির নির্বাচন প্রসঙ্গে প্রিজাইডিং অফিসার ফরহাদ হোসেন সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘সবমিলিয়ে ১২৭ জন ভোট দিবে। মোট ভোটার ১৭৩ (১৭১) জন, কিন্তু বাকিরা ভোট দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন না। কারণ, ইতোমধ্যে ওখানে নির্বাচিত হয়ে গেছেন। ৫৭ জন ই-ভোট ও পোস্টাল ব্যালটে এবং বাকিরা সশরীরে এসে ভোট দেবেন।’ আপনারা জানেন ই-ভোট ও পোস্টাল ব্যালট আমরা ইতোমধ্যে পাঠিয়ে দিয়েছি। এটা আমরা আগামীকাল ৫ টার মধ্যে চেক করবো। সে হিসেবে সকল প্রস্তুতিই সম্পন্ন। আমাদের ভোট প্রক্রিয়া যখন সম্পন্ন হবে তখন এগুলো ওপেন করবো।ভোটের আগের রাতে সরে দাঁড়ালেন আশফাকুল ইসলাম টিটুও

[১৫] ফলাফল কবে জানানো হবে সেটিই চূড়ান্ত করেছেন ফরহাদ ‘বেসরকারিভাবে আগামীকালই এটা ঘোষণা করা হবে, আর চূড়ান্তভাবে তারপরের দিন পাবেন আপনারা।’

[১৬] এবারের নির্বাচনে কোন প্যানেল না থাকায় ৩ ক্যাটাগরিতে মোট ৩২ জন প্রার্থী মনোয়নপত্র কিনেছিলেন। তবে ক্লাব ক্যাটাগরির শওকত আজিজ রাসেল নিজের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন। ফলে ৩১ জনকে নিয়েই নির্বাচনী কার্যক্রম শুরু করে নির্বাচন কমিশন। যদিও সময়সীমা শেষ হওয়ার পর নিজের নাম সরিয়ে নিতে চেয়েছিলেন ঢাকা জেলা ও বিভাগ ক্যাটাগরির খালিদ হোসেন। তবে প্রত্যাহারের সময় শেষ হওয়ায় ব্যালটে নাম থাকবে তার। ঢাকাপোস্ট, জাগোনিউজ, নিউজজিটুয়েন্টিফোর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত