প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নওগাঁর ধামইরহাটে ১০ বিঘা জমির ফুল গাছ কেটে সাবাড়

ডেস্ক রিপোর্ট: নওগাঁর ধামইরহাটে শহীদ আব্দুল জব্বার মঙ্গলবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ বিঘা জমি লিজ নিয়ে ফুলের বাগান করেছিলেন জাকারিয়া মন্ডল নামের এক ব্যক্তি। সেই ফুলবাগান কেটে ফেলার অভিযোগ উঠেছে স্কুলটির প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদের বিরুদ্ধে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শহীদ আব্দুল জব্বার মঙ্গলবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ বিঘা জমি লিজ নিয়ে চায়না বেলি ফুলের চাষ করে আসছিলেন জয়পুরহাটের ফুলচাষী জাকারিয়া মন্ডল। ৮ বছরের চেষ্টায় তিনি গড়ে তোলেন ফুলের গাছগুলো।

জাকারিয়া জানান, লিজের মেয়াদ শেষ হওয়ায় এ বছর লিজ নিতে গেলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ মোটা অঙ্কের টাকা উৎকোচ দাবি করেন। উৎকোচ না দেওয়ায় দখল ছেড়ে দিতে জাকারিয়াকে চাপ দেন প্রধান শিক্ষকসহ অন্যরা। পরে গত মঙ্গলবার বিকেলে প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে ও তার উপস্থিতিতে ফুল গাছগুলো কেটে তছনছ করে দেওয়া হয়। এতে বাগান মালিক জাকারিয়ার ১২ লাখের বেশি টাকার ক্ষতি হয়। আর ফুলবাগানের ফুলের মালা গেঁথে জীবিকা নির্বাহ করা কয়েক শত নারী কর্মহীন হয়ে পড়েছেন।

ফুল গাছ কাটার বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে উল্লেখ করে বিদ্যালয়টির সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বলেন, ‘বিদ্যালয়ের লিজকৃত জমির মেয়াদ ২ বছর আগেই শেষ হয়েছে। বাগান ছেড়ে দিতে তাকে উকিল নোটিশ দেওয়া হয়েছিল।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে ফোন কেটে দেন। বিষয়টি নিয়ে ধামইরহাট থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত জাকারিয়া। অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকও ধামইরহাট থানায় অভিযোগ করেছেন।

ধামইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল মমিন জানান, ‘বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন অবগত আছে এবং উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে দায়িত্ব অর্পন করা হয়েছে সমাধানের জন্য-এমনটাই জেনেছি। তবে বাদী-বিবাদী উভয়ে পৃথক পৃথক অভিযোগ দায়ের করেছেন, ঘটনা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত