প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৬৩ ভাগ নারীই অনলাইনে ভুয়া প্রেমের ফাঁদে পড়েন: সমীক্ষা

লিহান লিমা: অনলাইনের ভুয়া প্রেমের ফাঁদে পড়ে প্রতারিত হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠই নারী। বিবিসির প্রতিবেদনে প্রকাশিত এক সমীক্ষায় বলা হয়, অনলাইনের প্রতারিতদের মধ্যে ৬৩ ভাগই নারী, ভুয়া প্রেমের জালে ফেঁসে বছরে প্রতি একজন নারী গড়ে খোয়ান ১১ হাজার ১৪৫ পাউন্ড। বিবিসি।

ব্রিটেনের পুলিশ সেন্টার অ্যাকশনের এই তথ্যে আরো দেখা গিয়েছে, ২০১৮ সালে অনলাইনে প্রেমের জালে ফেঁসে ভুক্তভোগি ব্যক্তিরা খুইয়েছেন ৫০ মিলিয়ন পাউন্ড। প্রতারকরা ভুক্তভোগীদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে তাদের কাছ থেকে টাকা দাবি করেন। পুলিশ জানায়, ডেটিং ওয়েবসাইট, অ্যাপ, সামাজিক মাধ্যমের দ্বারা ভুক্তভোগীরা এর ফাঁদে পড়ে। প্রতারকরা ভুয়া ছবি ব্যবহার করে সম্পর্ক গড়ে তোলেন।

২০১৮ সালে ব্রিটেনের পুলিশ ৪ হাজার ৫৫৫টি অনলাইনে প্রতারণার শিকার হওয়া ঘটনার রেকর্ড করে। যা পূর্বের বছরের চাইতে ২৭ ভাগ বেশি। বেশিরভাগই সঙ্গীর প্রোফাইল ছবি, চাকরির স্ট্যাটাস দেখে তাদের সহজেই বিশ্বাস করে নেন। অনলাইনে সতর্ক থাকার নিরাপত্তা পরামর্শে বলা হয়, অপরাধীরা সাধারণত ফাঁদে ফেলতে নিজেদের চাকচিক্য জীবনযাত্রা দেখিয়ে থাকেন। পুলিশ এক্ষেত্রে সহায়তা করলেও অর্থ ফেরত আনতে পারে না। কারণ প্রতারকরা আইপি অ্যাড্রেস লুকিয়ে রাখে ও অ-নিবন্ধিত ফোন নাম্বার ব্যবহার করে। লন্ডন পুলিশের অপরাধ বিভাগের প্রধান বলেন, ‘প্রতি বছরই প্রেমের জালে ফাঁসিয়ে প্রতারণার সংখ্যা বাড়ছে। ভুক্তভোগীরা এর কারণে মানসিক এবং আর্থিক দুইভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত হন। মানসিকভাবে আঘাত পাওয়া ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে তা কাটিয়ে ওঠা কঠিন।’

ব্রিটিশ পুলিশের অ্যাকশন বিভাগ ডেটিং সাইট ও অ্যাপ ব্যবহারকারীদের শুধুমাত্র প্রোফাইট ছবি দেখে সম্পর্কে জড়ানো থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানায়। সরাসরি দেখা হওয়ার পূর্বে অনলাইনে কাউকে টাকা না পাঠানো ও ব্যক্তিগত তথ্য পাঠানোরআগে দ্বিতীয়বার ভাববার পরামর্শ দেয়া হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত