প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আর রাজি: স্বাধীনতা অথবা মৃত্যু

আর রাজি: অসভ্য বর্বর পরধনলোভী কুচক্রী দখলদার বেনিয়া বৃটিশ দস্যুদের আমাদের ভূমি থেকে খেদিয়ে দেওয়ার দিন আজ। আমাদের আরেক স্বাধীনতার দিন! “স্বাধীনতা-হীনতায় কে বাঁচিতে চায় হে, কে বাঁচিতে চায়? দাসত্ব শৃঙ্খল বল কে পরিবে পায় হে, কে পরিবে পায়।।”
কিংবা

“স্বাধীনতা অথবা মৃত্য” – দারুণ সব মন্ত্রে দীক্ষিত আমাদের বীর পূর্বপুরুষরা আমাদের জন্য ছিনিয়ে এনেছিলেন স্বাধীনতা!
স্বাধীনতা! আজ, ১৪ই আগস্ট! আজ বাংলাদেশের মানুষের অমিত গৌরবের দিন নয় কি?

“মুক্তির মন্দির সোপান তলে” বলিদান দেওয়া সেই সব বীরদের সশ্রদ্ধ চিত্তে স্মরণ করার দিন নয় কি আজ?
আমাদেরই পূর্বপুরুষরা দিল্লিশ্বরদের তাড়িয়েছে, তারাই আবার খেদিয়েছে বৃটিশদের, পশ্চিমপাকিস্তানি হানাদারদের কবল থেকে বাঁচিয়েছে নিজভূমি!

যদি আজ ভুলে থাকি তাঁদের কথা তাহলে প্রেরণার ফল্গুধারা কি নিঃশেষ হয়ে যাবে না? পথ হারাবে না কি আমাদের উত্তরপুরুষরা? তারা ভুলে যাব না তো, কতো দীর্ঘ সংগ্রামে-লড়াইয়ে, কী বিপুল প্রাণের বিনিময়ে আজ এই দেশ স্বাধীন!

শত ছলনা জাল ছিন্ন করে যদি দেশবীরদের স্মরণ রাখতে পারি আমরা তবেই না যুগ যুগ ধরে চলা তাঁদের ওই আত্মদান, তাঁদের এই অর্জন আগামীতেও পথ দেখাবে আমাদের! তবেই না “চিত্ত যেথা ভয় শূন্য” এমন এক সত্যিকারের স্বাধীন দেশ তৈরি করতে পারব আমরা আর অনন্তকাল প্রাণ খুলে গাইতে পারব “ও আমার দেশের মাটি তোমার ‘পরে ঠেকাই মাথা”।

সর্বাধিক পঠিত