প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পুলিশকে জানানোর পঞ্চম দিনেই জলাবদ্ধতা থেকে গ্রামবাসীর মুক্তি

সুজন কৈরী: পুলিশের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং পরিচালিত বাংলাদেশ পুলিশ অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজের ইনবক্সে বার্তা পাঠিয়ে দীর্ঘদিনের জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি পেয়েছে জয়পুরহাটের পাঁচবিবির রাইগ্রাম।

পুলিশ সদর দপ্তরের এআই‌জি (মি‌ডিয়া এন্ড পাব‌লিক রি‌লেশন্স) সো‌হেল রানা জানান, রাইগ্রামবাসীদের পক্ষে একজন সচেতন ব্যক্তি গত ১৫ মে একটি ফেসবুকের ইনবক্সে বার্তা পাঠান।

বার্তায় তিনি উল্লেখ করেন, এলাকার একজন প্রভাবশালী ব্যক্তির স্বেচ্ছাচার নির্মান কাজের কারনে গ্রামের পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। ব্যাপক জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে এবং গ্রামের মানুষের চলাফেরা বন্ধ হয়ে গেছে। দীর্ঘ এক বছর ধরে গ্রামের মানুষ এই সমস্যার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। নানাভাবে চেষ্টা করেও তারা এর কোনো সমাধান পাননি। তাই গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে তিনি পুলিশের সহযোগিতা চেয়ে বার্তাটি পাঠান।

বার্তাটি পাওয়ার মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং পাঁচবিবি থানার ওসি পলাশ চন্দ্র দেবকে অভিযোগের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য নির্দেশনা দেন। এরই প্রেক্ষিতে ওসির নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ওই গ্রাম ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষের সাথে কথা বলে বার্তায় প্রদত্ত তথ্যের সত্যতা পান। মিডিয়া উইংয়ের পরামর্শে বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের দৃষ্টিতে আনেন ওসি। পরে জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় গণ্যমাণ্য ব্যক্তিদের উদ্যোগে উভয় পক্ষের সম্মতিতে এবং গ্রামের মানুষের অংশগ্রহনে জলাবদ্ধতা নিরসনে প্রায় ১৫০ ফুট লম্বা ড্রেন তৈরী করা হয়। এর ফলে অত্যন্ত শাস্তিপূর্ণভাবে সমস্যাটির সমাধান হয়।

পাঁচ‌বি‌বি থানার ও‌সি সমস্যা‌টি সমাধা‌নে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূ‌মিকা পালন ক‌রে‌ছেন। মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইংকে বার্তা পাঠানোর মাত্র পাঁচ দিনের মধ্যে সমস্যাটির শান্তিপূর্ণ সমাধান হয়েছে।

গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে বার্তা প্রেরক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বলেন, আপনাদের প্রশাসন এসে আমাদের পানি নিষ্কাশনের সুষ্ঠ ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। আপনাদের এমন সৎ, সাহসী নেতৃত্ব ও যুগান্তকারী পদক্ষেপের করনে দীর্ঘ এক বছরের পানি নিষ্কাশনের কষ্ট ও কঠোর দ্বন্দ্ব সংঘাতের ভোগান্তি দূর হয়ে গ্রামের অসংখ্য মানুষের রাস্তা চলাচল ও জলাবদ্ধ জীবন থেকে মুক্তি মিললো। সবাই যেন ঈদের আনন্দের মতো আনন্দিত। বাংলাদেশ পুলিশ প্রশাসনই পারে নিরীহ মানুষের বন্ধু হয়ে দেশ ও জাতির পাশে দাঁড়াতে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত