প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাঁশখালীতে শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে চট্টগ্রামে শ্রমিকদলের মানববন্ধনে পুলিশি বাধা (ভিডিও)

রিয়াজুর রহমান: চট্টগ্রামের বাঁশখালীর গন্ডামারায় এস আলম গ্রুপের নির্মানাধীন এসএস পাওয়ার প্ল্যান্ট নামের বিদ্যুৎকেন্দ্রে সংঘর্ষে গুলিতে নিহত শ্রমিকের হত্যার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এবং তাদের ক্ষতিপূরর্ণ, আহত শ্রমিকদের চিকিৎসার দাবীতে বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) দুপুর ১২ টার দিকে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে শ্রমিকদল মানববন্ধন শুরু করে।

মানববন্ধনে শুরুতে বিএনপির কেন্দ্রিয় শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এ এম নাজিম উদ্দিন বক্তব্য দেওয়া শুরু করলে হঠাৎ কোতোয়ালী থানার ওসি নেজাম উদ্দিনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম এসে মানববন্ধনে বাধা দেন এবং ব্যনার ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন, পরে মানববন্ধন সমাপ্ত করতে বাধ্য হন শ্রমিকদলের নেতারা।

কিন্তু এর কয়েক মিনিট আগে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির উদ্যোগে গণপরিবহন খুলে দেয়ার দাবীতে একটি মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত মানববন্ধনে স্বাস্থ্য বিধি ও সামাজিক দুরত্ব মেনে মানববন্ধন করার কথা থাকলেও এসব মানার বালাই ছিল না। স্বাস্থ্য বিধি না মানার কারণে কিন্তু উক্ত মানববন্ধনে কোন বাধা না দিয়ে উল্টো এস আলমের কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে শ্রমিকদলের মানববন্ধন পুলিশের বাধা দেয়। এর আগে একই জায়গায় গত মঙ্গলবার বাংলাদেশ লেবার ফেডারেশন বিএলএফ নামে একটি শ্রমিক সংগঠনের মানববন্ধনে একই কায়দায় বাধা দেয় কোতোয়ালী থানা ওসি নেজাম উদ্দিনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক শ্রমিক বলেন, এস আলম আগেও দুই দফায় ৫জন শ্রমিককে হত্যা করেছিল ফের আবারও গুলি করে ৫জন হত্যা করল। এদের বিরুদ্ধে সরকার কোন ব্যবস্থা নিল না , শুধু তদন্ত কমিটি গঠন করে শেষ । এভাবে ধামাচাপা পড়ে যাবে আগের মত। এদের বিরুদ্ধে কথা বলতে গেলে পুলিশ বাধা দিচ্ছে। আমরা কি স্বাধীন দেশে কথা বলার অধিকার হারিয়েছি ?

উল্লেখ্য, গত ১৭ এপ্রিল দুপুর পৌনে ১২ টার দিকে চট্টগ্রামের বাঁশখালীর গন্ডামারায় এস আলম গ্রুপের নির্মানাধীন এস এস পাওয়ার প্ল্যান্ট নামের বিদ্যুৎকেন্দ্রে দেশীয় নির্মাণ শ্রমিকদের বিক্ষোভে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঐ দিন মারা যান ৫ জন শ্রমিক। পরে চমেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো দুই জনের মৃত্যু হয়। সংঘর্ষের ঘটনায় তিন পুলিশ সহ আহত হয় আরো ২৫ জন শ্রমিক।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত