প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নূরী জাহানারা: পুরুষদের নারীকে হিংসা করার অবাধ লাইসেন্স কে দিয়েছে?

নূরী জাহানারা: পুরুষদের নারীকে হিংসা করার অবাধ লাইসেন্স কে দিয়েছে? দিয়েছে রাষ্ট্র, সমাজ, ধর্ম, পরিবার ও পিতৃতন্ত্র নামক সিস্টেম। মানবতাবোধকে ধারণ করার অর্থ আমাদের সাথী মানুষকে গণ্য করা, তার বাঁচার ও উন্নয়নের সুযোগ পাওয়ার অধিকার প্রতিষ্ঠায় সহায়ক হওয়া। এর উল্টোটা যারা করে তারা কোনো না কোনো ধর্মে ধার্মিক এবং সব ধর্মই আমি সেরা এই মতবাদে বিশ্বাসী। তার অনুসারীদের এই সেরা প্রতিষ্ঠার কমপিটিশনে অন্যকে হত্যা করারও আদেশ দিতে অনেক ধর্ম পিছ পা নয়। এসব লিখিত তথ্য, তা স্বত্ত্বেও মুসলমান কেন এসব অস্বীকার করে? মডরেট বলতে কোনো মুসলমান হয় কি করে যে শরিয়া অনুযায়ী পরিবার চালাতে বলে? যে নারীর যাতায়াত, সিদ্ধান্তগ্রহণ, শিক্ষা ও কাজ এবং যৌন জীবনের স্বাধীনতাকে কুক্ষিগত করে রাখতে চায়?

নারীর ওপর চলে আসা সব অত্যাচার, অন্যায় নির্যাতন, নিপীড়ন ও হত্যাকান্ডের মূল মেসেজ হলো, নারীদের পুরুষের হাতের পুতুল হয়ে থাকতে হবে। তাদের কোনো স্বাধীন ইচ্ছা থাকতে পারবে না। যতো ব্যক্তি নারী এ সবের বাইরে যেতে চাইছে ততোই সমাজে যারা দুর্বল, দরিদ্র, রাজনৈতিক ক্ষমতাহীন ও অন্যধর্মাবলম্বী, তাদের নারীরা পুরুষদের হিংসার শিকার হচ্ছে। আইন সাধারণ মানুষের পক্ষে নাই। রাজনীতি অর্থ ও ক্ষমতার কাছে বিক্রিত এবং পুরুষদের নারীর বিরুদ্ধে হিংসা ব্যবহারের লাইসেন্স দিয়ে দেওয়া হয়েছে। আইন করে করা হয়েছে এটা। দলীয় নীতির নামে করা হয়েছে এটা। সমাজের নামে, পরিবারের সুনামের নামে করা হয়েছে এসব। ফেসবুক থেকে

সর্বাধিক পঠিত