প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঘুমের ওষুধ দিয়ে ১৫ দিন ছাত্রকে বলাৎকার, মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

পূর্বপশ্চিম: নারায়ণগঞ্জের ঘুমের ওষুধ খাইয়ে গত ১৫ দিন ধরে এক মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ উঠেছে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। ওই শিক্ষকের নাম শহিদুল্লাহর (৪৫)। তিনি ওই মাদ্রাসা ছাত্রকে পড়াতেন। এ ঘটনায় ৪ অক্টোবর, রবিবার ওই শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ।

জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ উপজেলায় মিজমিজি পাইনাদী নতুন মহল্লা এলাকার একটি মাদ্রাসায় এই ঘটনা ঘটেছে। এর আগেও ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আরো এক ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ উঠেছিল। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফয়সাল আলম এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

ওই ছাত্রের পরিবার জানায়, গতকাল রবিবার ওই ছাত্র পালিয়ে তার বাড়িতে চলে যায়। পরে তার কাছ থেকে ঘটনা জানতে পারেন তারা।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী ওই ছাত্র জানায়, গত ১৫ দিন ধরে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে মাদ্রাসার শিক্ষক শহিদুল্লাহ তাকে বলাৎকার করেছে। ব্যথা কমাতে তাকে ওষুধও খাওয়ান তিনি। তাকে বিভিন্নরকম ভয়-ভীতিও দেখাতেন ওই শিক্ষক।

এদিকে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, এর আগেও এক ছাত্রকে বলাৎকার করেছিলেন ওই শিক্ষক। তবে ওই সময় বিষয়টি মাদ্রাসা প্রধানের সহায়তায় ধামাচাপা দেয়া হয়।

এ বিষয়ে থানার এসআই ফয়সাল আলম জানান, অভিযুক্ত মাদ্রাসা শিক্ষককে আটক করে থানায় নেয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত