প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানালো বিএনপি

মাজহারুল ইসলাম : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে আছেন প্রায় দুই বছর, এখন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার মুক্তির দাবিতে এ বছর কঠোর আন্দোলন করার কথা বললেও বাস্তবে তা হয়নি। অনশন, মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল এবং দেশব্যাপী সমাবেশ করলেও কার্যত জোরালো কোনো কর্মসূচি দিয়ে মাঠে নামতে পারেনি বিএনপি।
এরই মধ্যে এ বছরের শেষদিকে দলের দুইজন সিনিয়র নেতা পদত্যাগ করেন। বিএনপি জোট থেকে আন্দালিভ রহমান পার্থের জাতীয় পার্টি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ বেরিয়ে যায়। জোটের শরিক দল এলডিপির জাতীয় মুক্তিমঞ্চ গঠন নিয়েও বিএনপির ভিতরে-বাইরে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

তবে সাংগঠনিক কার্যক্রম পুনর্গঠনে সারা বছরই সক্রিয় ছিলো বিএনপি। কমিটি গঠন আর আন্দোলন প্রস্তুতিতে বছর পার করেছে তারা। গত বছর ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কারচুপির অভিযোগে নতুন নির্বাচনের দাবি করলেও সময়ের পরিক্রমায় তা ফিকে হয়ে যায়।

দল পুনর্গঠনের অংশ হিসেবে ৮১টি সাংগঠনিক জেলার মধ্যে প্রায় অর্ধেক জেলায় আহবায়ক কমিটি করলেও যথাসময়ে হয়নি পূর্ণাঙ্গ কমিটি। আংশিক কমিটি দিয়েই তারা মেয়াদ পার করেছে। একই অবস্থা ঢাকা মহানগর বিএনপিরও। দুই শাখায়ই আংশিক কমিটি দিয়ে চলছে। ওয়ার্ড ও থানা পর্যায়ে এমনকি মহানগর দুই শাখায়ও হয়নি পূর্ণাঙ্গ কমিটি। এ নিয়ে ক্ষুব্ধ বিএনপির হাইকমান্ড। অবশ্য এরই মধ্যে কাউন্সিলে নির্বাচনের মাধ্যমে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় দুই নেতা নির্বাচিত হয়েছেন। কেন্দ্রীয়ভাবে আংশিক কমিটিও ঘোষণা হয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গতকাল গণমাধ্যমকে বলেন, নানা প্রতিক‚লতার মধ্যে বিএনপি শক্তিশালী অবস্থান নিয়ে রাজনীতিতে টিকে আছে এটাই বড় সফলতা। বিএনপির সর্বস্তরের নেতা-কর্মীরা আজ মামলা-হামলায় জর্জরিত। গত দশ বছরে বিএনপির অন্তত ৩৫ লাখ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে। এই সময়ে বিএনপি ও বিরোধী রাজনৈতিক দলের ৩ শতাধিক নেতা-কর্মী গুম হয়েছেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, বছরজুড়ে আমাদের অর্জন একেবারে কম বলা যাবে না। নতুন বছরে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে দল মত নির্বিশেষে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। সম্পাদনা : সালেহ্ বিপ্লব

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত