প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এসআইয়ের নাম ভাঙ্গিয়ে চাঁদাবাজিতে থানায় বিক্ষোভ; সোর্স আটক

অলক কুমার দাস, টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইল মডেল থানার এক এসআইয়ের নাম ভাঙ্গিয়ে সোর্সের চাঁদাবাজি ও হয়রানির অভিযোগে শনিবার রাতে থানার সামনে বিক্ষোভ ও বিচার দাবি করেছে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বেলতা গ্রামের মানুষ। এ সময় তারা ওই এসআইয়ের প্রত্যাহার ও সোর্সের বিচার চেয়ে বিভিন্ন শ্লোগান দিতে থাকে। পরে পুলিশ ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী নয়টার দিকে থানা চত্বর ত্যাগ করে।

এই ঘটনায় সোর্স আবু বক্করকে আটক করেছে পুলিশ।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, কিছুদিন আগে বেলতা গ্রামে একটি হত্যাকাণ্ড ঘটে। সেই হত্যাকাণ্ডের তদন্তের নামে টাঙ্গাইল মডেল থানার এসআই জেসমিনের সোর্স পরিচয়ে এক ব্যক্তি তার (জেসমিন) নাম ধরে স্থানীয়দের কারো কারো কাছ থেকে মোটা চাঁদা আদায় করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তাকে ওই হত্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেয়া হবে বলে শাসানো হয়। এছাড়া গ্রামের মানুষদের বিভিন্নভাবে হয়রানিও করা হয়। এরই সূত্র ধরে শনিবার বিকেলের দিকে ওই সোর্স আবু বক্কর বেলতা গ্রামে গিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করলে গ্রামবাসী তাকে আটক করে। এসআই জেসমিন তাকে উদ্ধার করতে গেলে গ্রামবাসী তাকেও ঘিরে ধরে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের উদ্ধার করে। সন্ধ্যার পর গ্রামবাসী একত্র হয়ে জেসমিনের প্রত্যাহার ও সোর্স দাবিতে থানা ঘেরাও করে।

এ ব্যাপারে টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রেজাউর রহমান বলেন, থানা ঘেরাও নয়, গ্রামবাসী অভিযোগ দিতে এসেছিল। তাদের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। এর প্রেক্ষিতে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। মামলার ভয় দেখিয়ে কারো কাছ থেকে টাকা নেয়া কোনভাবে বিধিসম্মত নয়। এ ধরণের কোন ঘটনা ঘটে থাকলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সোর্স আবু বক্কর এর বিরুদ্ধে একটি চাঁদাবাজির মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত