প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

রাজধানীতে বিপুল সংখ্যক মাদক উদ্ধার
শ্যামলী পরিবহনের চালক-হেলপারসহ আটক ৮৭

সুজন কৈরী : রাজধানীর রূপনগর এলাকা থেকে ২ হাজার ৪০১ পিস ইয়াবাসহ শ্যামলী পরিবহনের চালক ও হেলপারকে আটক করেছে র‌্যাব-২। আটককৃতরা হলেন- মো. জিয়াউর (২৭) ও মো. আমিনুল ইসলাম মিলন (২৬)।

শুক্রবার সকালের দিকে রূপনগরের ইস্টার্ন হাউজিং বেড়িবাধ সংলগ্ন বাইতুল নূর মসজিদের সামনে থেকে তাদের আটক করা হয়। ইয়াবা ছাড়াও তাদের কাছ থেকে সিমসহ দুটি মোবাইল ফোনসেট ও নগদ আড়াই হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে রাজধানীতে মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান চালিয়ে ইয়াবা, হেরোইনসহ বিপুল সংখ্যক মাদকসহ ৮৫ জনকে আটক করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।

র‌্যাব-২ এর সিনি. এএসপি মোহাম্মদ রবিউল ইসলাম জানান, কক্সবাজার থেকে কতিপয় মাদক ব্যাবসায়ী শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসে বাস চালক ও হেলপারের যোগসাজসে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্য নিয়ে ঢাকায় নিয়ে আসছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে রুপনগরের ইস্টার্ন হাউজিং বেড়িবাধ সংলগ্ন বাইতুল নূর মসজিদের সামনে অভিযান চালানো হয়। এ সময় শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসকে থামার সংকেত দিলে চালক বাসটি থামায়। কিন্তু র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে বাসটির হেলপার গাড়ীর মূল দরজা খুলে এবং চালক বাসের ডান পার্শ্বের জানালা খুলে কৌশলে পালানোর চেষ্টাকালে তাদের আটক করা হয়। তাদের ইয়াবার চালান সংক্রান্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রথমে তারা অস্বীকার করলেও পরে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেন।

জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছেন, লোভে পরে ইয়াবার চালানটি তারা ঢাকায় নিয়ে এসেছেন। তাদের দেয়া তথ্যে যাত্রীদের বসার আসনের সীটের উপর ব্যাগ রাখার জায়গায় লাইটের ব্যাঙ্কারের মধ্যে বিশেষ কায়দায় লুকায়িত ইয়াবার চালান বের করে দেয়। তারা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখকে ফাঁকি দিয়ে অভিনব পন্থায় নিত্য নতুন কৌশলে কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, টেকনাফ সীমান্ত এলাকা থেকে ইয়াবা সংগ্রহ করে রাজধানীসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলার মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে সরবরাহ করে আসছে। ইতিপূর্বেও তারা ইয়াবার বেশ কয়েকটি বড় বড় চালান বাসযোগে বহন করে নিয়ে এসে তা বিক্রয় করতে সফল হয়েছে। অতি লাভের আশায়, রাতারাতি ধনী হবার নেশায়, নিজেদেরকে নিষিদ্ধ এ মাদক ব্যবসায় জড়িয়েছে।

এদিকে রাজধানীর বিভিন্নস্থানে মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান চালিয়ে মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ৮৫ জনকে আটক ডিএমপির বিভিন্ন থানা ও গোয়েন্দা বিভাগ।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২ হাজার ৮৭ পিস ইয়াবা, ৮০১ গ্রাম ওজনের ৯৩৯ পুরিয়া হেরোইন, ৭ কেজি ২১০ গ্রাম গাঁজা, ২০ লিটার দেশী মদ, ৮ ক্যান বিয়ার ও ২০টি নেশাজাতীয় ইনজেকশন উদ্ধার করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৫১টি মামলা করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত