শিরোনাম

প্রকাশিত : ০১ অক্টোবর, ২০২২, ১০:১৫ রাত
আপডেট : ০১ অক্টোবর, ২০২২, ১০:১৫ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

২৪ বছরে পদার্পণ করলো চ্যানেল আই

অনুষ্ঠানে উপস্থিতদের একাংশ

আবু সুফিয়ান : ১ অক্টোবর রাত ১২টা ১ মিনিটে ২৪ বছরে পদার্পণ করলো চ্যানেল আই। এ সময়ে বিশিষ্টজনদের সঙ্গে নিয়ে চ্যানেল আই পরিবারের সদস্যরা বর্ণাঢ্য আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে প্রথম প্রহরের একটি কেক কাটেন। অনুষ্ঠানে অংশ নেন কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, দিলিপ বড়ুয়া এমপি, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক নুরুল হুদা, ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি. চ্যানেল আইয়ের পরিচালক ও বার্তা প্রধান শাইখ সিরাজ, ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি., চ্যানেল আই পরিচালনা সদস্য আবদুর রশীদ মজুমদার, জহির উদ্দিন মাহমুদ মামুন, মুকিত মজুমদার প্রমুখ। দেশের শীর্ষ দৈনিকগুলো প্রকাশ করেছে বিশেষ ক্রোড়পত্র। সেখানে চ্যানেল আইকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়ে বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাণী দিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চ্যানেল আই-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর এবং পরিচালক ও বার্তা প্রধান শাইখ সিরাজ। ক্রোড়পত্রে রয়েছে নাসির উদ্দিন ইউসুফের বিশেষ লেখা। চ্যানেল আইকে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন বিভিন্ন অঙ্গনের বিশিষ্ট জনেরা।

এরপর ১ অক্টোবর সকাল ১১.০৫ মিনিটে বিভিন্ন অঙ্গণের বিশিষ্ট জনের উপস্থিতিতে পায়রা উড়িয়ে উদ্বোধন করা হয় ২৪ বছরে চ্যানেল আই-এর বর্ণাঢ্য আয়োজন। বিভিন্ন সময় ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাতে চ্যানেল আই কার্যালয়ে আসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, মির্জা আব্বাস, তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ, প্রধানমন্ত্রীর বানিজ্য বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ. রহমান (এমপি), ডিএমপি কমিশনার মো. শফিকুল ইসলাম বিপিএম (বার), ডিবি প্রধান হারুনুর রশীদ, ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যাল লি. এর চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল মুক্তাদির সহ অনেকে।

ফল, ফসল নিয়ে শুভেচ্ছা জানান বিভিন্ন কৃষকরা। শুভেচ্ছা গ্রহণ করেন চ্যানেল আই-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, পরিচালক ও বার্তা প্রধান শাইখ সিরাজ, ইমপ্রেস গ্রুপের পরিচালনা পর্ষদ সদস্য জহির উদ্দিন মাহমুদ মামুন এবং মুকিত মজুমদার।

মেলায় ছিল বিভিণ্ন পণ্য সামগ্রীর স্টল। ২৪ বছরে পদাপর্ণ উপলক্ষে ছবি একেছেন শিল্পী আবদুল মান্নানসহ অনেকে। সঙ্গীত পরিবেশন করেছেন মো. খুরশীদ আলম, ফেরদৌস আরা, সেলিম চৌধুরী, সেরাকণ্ঠ ইমরান, ঝিলিকসহ ক্ষুদে গানরাজ ও বাংলার গানের শিল্পীরা। নৃত্য পরিবেশন করেছেন চ্যানেল আই সেরা নাচিয়ের শিল্পীরা।

সন্ধ্যা ৭টায় বর্ণিল আলোর আতশবাজির মধ্য দিয়ে বিশাল আকৃর্তির কেক কেটে ২৪ বছরে পদার্পনের অনুষ্ঠানের সমাপ্তি টানেন বিশিষ্টজনরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক প্রফেসর ড. এবিএম আবদুল্লাহ, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব নাজমা আক্তার, আব্দুস সালাম, সাবেক উপদেষ্টা রাশেদা কে. চৌধুরী, শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, রেবেকা সুলতানা, শিক্ষাবীদ আসিফ নজরুল, ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি., চ্যানেল আই-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, পরিচালক ও বার্তা প্রধান শাইখ সিরাজ, ইমপ্রেস গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুর রশিদ মজুমদার, পরিচালনা পর্ষদ সদস্য জহিরউদ্দিন মাহমুদ মামুন, মুকিত মজুমদার, নারী উদ্যোক্তা কনা রেজা প্রমুখ।

দুই যুগের আন্দঘন মুহূর্তে অনুভূতি প্রকাশ করে ফরিদুর রেজা সাগর বলেন, ‘সবাই যেন বলি ‘আমার চ্যানেল আই’। এটুকুই প্রত্যাশা। এ প্রসঙ্গে শাইখ সিরাজ বলেন, ‘চ্যানেল আই প্রথম দিন থেকেই চেয়েছে গনমানুষের চ্যানেল হওয়ার। সেটা চ্যানেল আই কতটুকু পূরণ করতে পেরেছে, সেই বিচার আপনাদের মাঝে।

বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা, প্রকৃতিপ্রেমী এবং ইমপ্রেস গ্রুপের পরিচালক মুকিত মজুমদার বলেন, ‘চ্যানেল আই মানুষের কথা ভেবেছে, মানুষের কথা বলছে। দেশ ও মাটি সব মিলিয়ে চ্যানেল আই।

শুধু এন্টারটেইনমেন্ট নয়, ইনফরমেশনের ব্যাপারটিও চ্যানেল আই সবসময় মাথায় রেখেছে। সেই চ্যানেল আই ২৪ বছরে পা দিলো। চ্যানেল আই যেন আরও অনেক বছর আপনাদের ভালোবাসা নিয়ে এগিয়ে যেতে পারে, সেটাই আমাদের প্রত্যাশা।

ইমপ্রেস গ্রুপের পরিচালক জহিরউদ্দিন মাহমুদ মামুন বলেন, ‘মাধ্যমটার নাম গণমাধ্যম। এর চেয়ে আর বড় কিছু তো বলার থাকে না। আমরা চেষ্টা করেছি দীর্ঘ দুই যুগ ধরে, কতটা সফল হয়েছি তা আপনাদের বিবেচনা। তবে আমাদের চেষ্টা সবসময়েই থাকবে।

ইমপ্রেস গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুর রশিদ মজুমদার বলেন, এই চলার পথে আপনারা আমাদের সাথে যেরকম ছিলেন, আগামীতেও থাকবেন সেই আশাই করি।

উল্লেখ্য, ১৯৯৯ সালের ১ অক্টোবর যাত্রা শুরু করে চ্যানেল আই। দুই বছর পর এদিন চালু হয় সংবাদ। আর ২০১৫ সালের ২০ এপ্রিল যাত্রা শুরু করে চ্যানেল আই অনলাইন।  সম্পাদনা: আল আমিন 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়