শিরোনাম
◈ কক্সবাজার থেকে ৫০ বাসে ফিরবেন আটকে পড়া পর্যটকরা ◈ টানা তিন দিন দেশে ব্রডব্যান্ড ও মোবাইল ডাটা বন্ধ থাকায় বিপাকে ফ্রিল্যান্সাররা ◈ বান্দরবান থমথমে, বেড়াতে গিয়ে ২ শতাধিক পর্যটক আটকা ◈ ছুটি মঙ্গলবারের পরও বাড়বে কি না, যা বললেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী ◈ নগদ টাকা তুলতে বিপাকে গ্রাহকরা, এটিএম বুথে টাকার সংকট ◈ কমল পেঁয়াজ-মরিচ-আলুর দাম, বাড়ল পামওয়েলের ◈ কমপ্লিট শাটডাউন’ কর্মসূচি ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে স্থগিত : নাহিদ ইসলাম ◈ কোটা সংস্কারের প্রজ্ঞাপন জারি ◈ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ‘নিয়ন্ত্রণে’ মোহাম্মদপুর ◈ আমিরাতে বাংলাদেশ সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখিয়ে রাস্তায় দাঙ্গা উস্কে দেওয়ার অভিযোগে ৫৭ জন বাংলাদেশির জেল

প্রকাশিত : ০৪ জুন, ২০২৩, ০১:৫৯ দুপুর
আপডেট : ০৪ জুন, ২০২৩, ০২:৫৬ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বিদ্যুৎ না থাকলেও গরমে আরামে ও ঘামহীন ঘুমের জন্য করণীয়

এ্যানি আক্তার: বিদ্যুৎ না থাকলে গরমে ঘুমের বারোটা বেজে য়ায়। ঘামে বিছানা-বালিশ ভিজে অবস্থা খুব খারাপ থাকে। গরমের রাতে ঘামহীন ও আরামের ঘুমের কিছু পরামর্শ কাজে আসতে পারে।

গরমে রাতে আরামে ও ঘামহীন ঘুমের জন্য করণীয়-

১. ঘরে সাদা বা এমন হালকা রঙের পর্দা ব্যবহার করুন, যা রোদের তাপ প্রতিফলিত করে, শুষে নেয় না। আর দিনের বেলায় ভালো করে জানালায় পর্দা টানিয়ে রাখুন, যাতে ঘর বেশি গরম হয়ে না যায়।

২. ঘুমাতে যাওয়ার আগে সম্ভব হলে গোসল করে নিন। তা না হলে অবশ্যই ভালো করে পা ধুয়ে, দুই হাতের কবজি ঠান্ডা পানিতে ভিজিয়ে নিন। ঘাড়ে, গলায় একটু পানি দিন।

৩. বিছানার কাছে পানি ভর্তি একটা ছোট্ট স্প্রে রাখুন। ‘প্ল্যান্ট মিস্টার’ বা গাছে পানি দেয়ার স্প্রে বা তেমন কিছু না থাকলে মশার ওষুধের খালি স্প্রে পরিষ্কার করে নিয়েও ব্যবহার করতে পারেন। ঘুমাতে যাওয়ার আগে এটা থেকে মুখে-ঘাড়ে হালকা পানি স্প্রে করতে পারেন।

৪. একটা রুমাল বা এক টুকরো নরম কাপড় পানিতে ভিজিয়ে ঘণ্টা খানেকের জন্য ফ্রিজের ভেতর রেখে দিন। শোয়ার সময় কাপড়টা জ্বরপট্টির মতো করে কপালে দিয়ে রাখুন। এটা তা মাথা ঠান্ডা করবে এবং দ্রুত ঘুমিয়ে পড়তে সহায়তা করবে।

৫. গরম অতিরিক্ত হয়ে গেলে একটা অল্প-ভেজা টি-শার্ট এবং মোজা পায়ে দিয়েও ঘুমানোর চেষ্টা করতে পারেন। তা শরীর ঠান্ডা রাখবে এবং ঘাম ঠেকাবে।

৬. অবশ্যই সুতি এবং নরম কাপড়ের বিছানার চাদর ব্যবহার করুন। আর বিছানার চাদর ও বালিশের কভার নিয়মিত ধুয়ে পরিষ্কার করে ব্যবহার করুন।

৭. সবশেষ কথা হলো দিনে যতটা সম্ভব বেশি করে পানি খান, সুস্থভাবে কাটানোর চেষ্টা করুন। তার পরও ঘুম না এলে ইতিবাচক চিন্তা-ভাবনা করার চেষ্টা করুন, তাতে রাতের ঘুম ভালো না হলেও বাড়তি চাপের কারণে পরের দিনটা খারাপ যাবে না, বরং দিনটা সৃষ্টিশীল হয়ে উঠতে পারে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়