প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কর্মসংস্থানমুখী উন্নয়ন বাজেট প্রয়োজন: যুব ইউনিয়ন

মনিরুল ইসলাম: [২] প্রবৃদ্ধির আসক্তিতে মত্ত বর্তমান সরকার কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে ব্যর্থ উল্লেখ করে বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ বলেছেন, যেকোন প্রক্রিয়ায় প্রবৃদ্ধির সুচক সংখ্যা পুরণে সরকারের যে প্রচেষ্টা, তা নিছক ব্যর্থতাকে আড়ালের কৌশল মাত্র। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য কর্মসংস্থানমুখী উন্নয়ন বাজেট প্রয়োজন।

[৩] সোমবার রাজধানীর পল্টন মোড়ে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ এ কথা বলেন। যুব ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সভাপতি হাফিজ আদনান রিয়াদের সভাপতিত্ব সমাবেশে বক্তৃতা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক খান আসাদুজ্জামান মাসুম, ডা. সাজেদুল হক রুবেল ও জাহাঙ্গীর আলম নান্নু প্রমুখ।

[৪] সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে নিম্ন মধ্যবিত্ত ও সমাজের দরিদ্র ও সুবিধা বঞ্চিত মানুষের সামনে জীবন-জীবিকার সংকটে। এই মুহূর্তে বৃহত্তর তরুণ ও যুব জনগোষ্ঠীর জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি অন্যতম একটি প্রধান চ্যালেঞ্জ। কিন্তু সরকার সেই দিকে যথাযথ দৃষ্টি না দিয়ে প্রবৃদ্ধি সৃষ্টিতে আগ্রহী। আরো বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলিতে উল্লেখযোগ্য অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি সত্ত্বেও, কর্মসংস্থান সমস্যা সমাধানে তা সাফল্য দেখাতে পারেনি। যে উন্নয়ন পরিকল্পনায় নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয় না, তা যতই চকচকে হোক না কেন, প্রকারন্তরে তা ফাঁপা এবং সরকারের ব্যর্থতাকে আড়ালের অপকৌশল মাত্র।

[৫] নেতৃবৃন্দ বলেন, অর্থনৈতিক কার্যকলাপ বন্ধ বা মন্দার কারণে জনগণের চাকরির ক্ষতি হচ্ছে, নিয়মিত বেতন না পাওয়া, কম বেতন পাওয়া বিশেষ করে বেসরকারী চাকুরিজীবীদের বেলায় এমনটি ঘটছে। অনেক নিম্ন আয়ের মানুষ গ্রামে ফিরে গেছেন। চাকরির বাজার হ্রাস পাবার কারণে অনেক তরুণকে হতাশার মধ্যে ফেলেছে। তরুণ চাকরি প্রত্যাশীদের জন্য নতুন স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে (নিউ নরমাল সিচুয়েশন) তীব্র উদ্বেগ এবং চাকরির বাজারে কোভিড-১৯ প্রভাব নিয়ে আলোচনা করে সময় কাটাতে দেখা যায়।

[৬] নেতৃবৃন্দ বলেন, আমরা বেকারত্বের অভিশাপ দেখতে চাই না, আমরা যুবকদের হতাশ দেখতে চাই না, আমরা যুবকদের উদ্যোগী হিসেবে দেখতে চাই। তরুণদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা অত্যন্ত জরুরি। এজন্য নতুন চাকুরি সৃষ্টি করা বা কর্মসংস্থানের উদোগ গ্রহণের জন্য বাজেটে একটি বিশেষ বরাদ্দ রাখা এখন সময়ের দাবি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত