প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দেবিদ্বারে শিশু ধর্ষণ মামলার পালাতক আসামির ৪৭ দিন পর লাশ উদ্ধার

শাহিদুল ইসলাম: [২] কুমিল্লার দেবিদ্বারের ছোট মিয়া (৬২) একটি শিশু ধর্ষণ মামলায় পলাতক (নিখোঁজ) হওয়ার প্রায় দেড় মাস পর তিতাস উপজেলার নির্জন এলাকা থেকে তার কঙ্কাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার দুপুরে তিতাস উপজেলার কলাকান্দি ইউনিয়নের দড়ি মাছিমপুর গ্রাম সংলগ্ন সরিষাবাগ থেকে ছোট মিয়ার কঙ্কালটি উদ্ধার করা হয়।

[৩] স্থানীয়রা জানান, শনিবার সকালে স্থানীয় কয়েকজন কৃষক ফসলি জমিতে কাজ করতে যাওয়ার পথে সরিষাবাগের জমির এক পাশে কঙ্কালটি দেখতে পায়। পরে তারা থানা পুলিশকে খবর দেয়। তিতাস থানা পুলিশ গিয়ে ছোট মিয়ার মাথার খুলি, বুকের হাড়, হাত ও পায়ের হাড্ডিগুলো উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। উদ্ধারকৃত কঙ্কালের সঙ্গে একটি পাঞ্জাবি, পাঞ্জাবির পকেটে টুপি, মাস্ক, শ্বাসকস্ট জনিত রোগ নিরাময়ে ইনহেলাসহ কিছু ওষুধ, একটি বন্ধ মোবাইল ফোন পাওয়া যায়।

[৪] সংবাদ পেয়ে উক্ত মৃত ব্যক্তির মৃত্যুর কারণ ও মৃত ব্যক্তির পরিচয় উদঘাটনে তিতাস থানা পুলিশের পাশাপাশি ঘটনাস্থলে আসেন সিআইডি ও পিবিআইর দুটি দল। ঘটনাস্থল থেকে পাওয়া মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মৃত ব্যক্তির পরিচয় উদঘাটন করা হয়।

[৫] তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আহসানুল ইসলাম বলেন, উদ্ধারকৃত মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মৃত ব্যক্তির পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। তার আত্মীয়-স্বজনকে থানায় ডেকে এনেছি, তারা ওই মোবাইল সেট ও সেটে থাকা নম্বরগুলো সনাক্ত করেছেন।

[৬] দেবিদ্বার থানার ওসি মো. আরিফুর রহমান বলেন, কোনো কঙ্কাল উদ্ধার হয়নি। তিতাস থানা পুলিশ দেবিদ্বার ভিংলাবাড়ির ছোট মিয়ার মরদেহ উদ্ধার করেছে। স্বজনেরা লাশ কবরস্থও করেছে।

[৭] এদিকে, দোকানে ৯ বছরের এক ছোট্ট শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ছোট মিয়ার (৬২) বিরুদ্ধে গত ৬ মার্চ দেবিদ্বার থানায় মামলা হয়। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ হন। পরিবারের সদস্যরা এবং পুলিশ খুঁজে তার সন্ধান পায়নি। সম্পাদনা: সাদেক আলী

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত