প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]জাতীয় গণমাধ্যম সপ্তাহকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবিতে, প্রধানমন্ত্রী বরাবর টেকনাফ বিএমএসএফের স্মারকলিপি

ফরহাদ আমিন: [২]জাতীয় গণমাধ্যম সপ্তাহকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন টেকনাফ উপজেলা শাখার(বিএমএসএফ)নেতৃবৃন্দরা।

[৩]সোমবার দুপুরে উপজেলা কার্যলয়ে নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)পারভেজ চৌধুরীর মাধ্যমে এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।এ সময় উপস্থিতি ছিলেন,বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম টেকনাফ উপজেলা শাখার সভাপতি ফরহাদ আমিন,সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আমিন,অর্থ সম্পাদক মোঃআলমগীর আজিজ,নির্বাহী সদস্য নুরুল হোসাইন প্রমুখ।

[৪]স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়,বিএমএসএফ প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশের সাংবাদিকদের মাঝে জাতীয় এঁক্য প্রতিষ্ঠা, মর্যাদা,দাবী ও অধিকার আদায়ে কাজ করছে।২০১৩ সালে সংগঠনটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশের অরক্ষিত গণমাধ্যম অঙ্গনকে ঢেলে সাজাতে সরকারের কাছে বিভিন্ন সময়
বিভিন্ন দাবি বাস্তবায়নে সহযোগিতা চাওয়া হচ্ছে।আপনি জানেন যে,দেশে সকল পেশাজীবিদের নিয়ন্ত্রণের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় কিংবা অধিদপ্তর রয়েছে।

[৫] দেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসাবে বিশ্বে খ্যাতি অর্জন করেছে। স্বাধীনতার ৫০বছরে দীড়িয়ে আজও সাংবাদিকরা পায়নি নিজন্ব কোন অধিদপ্তর কিংবা মন্ত্রণালয়।তথ্য অধিদপ্তর কিংবা তথ্য মন্ত্রণালয় আসলে সাংবাদিকদের নিজস্ব কোন প্রতিষ্ঠান কিনা তা সাংবাদিকদের কাছে অস্পস্ট।যদি তথ্য মন্ত্রণালয় সাংবাদিকদের মন্ত্রণালয় হয়েই থাকে তবে বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশেও ৩ মে বিশ্বমুক্ত গণমাধ্যম দিবস পালিত হতো।

[৬] কিন্তু অত্যন্ত দু:খ ও পরিতাপের বিষয় তথ্য মন্ত্রণালয় কিংবা তথ্য অধিদপ্তর বিশ্বমুক্ত গণমাধ্যম দিবসের কোন কর্মসূচি পালন করে না।পাশ্ববর্তী দেশ ভারত সহ বিশ্বের সব রাষ্ট্রে সাংবাদিকদের এই আন্তর্জাতিক দিবসটি তথ্য অধিদপ্তর যথাযোগ্য মর্যাদার সাথে পালন করে থাকে।

[৭] বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম ২০১৭ সাল থেকে জাতীয় গণমাধ্যম সপ্তাহ ১-৭ মে নিজস্ব গণ্ডিতে উদ্যাপন করে আসছে।তাই গণমাধ্যম সপ্তাহটি আজ সারা দেশের সাংবাদিকদের কাছে বিশেষ গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছে।এই মুহুর্তে জাতীয় গণমাধ্যম সপ্তাহটি রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবি রাখে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত