প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভোর বেলা এবং গর্ভাবস্থা চোর রাবেয়ার চুরির কৌশল

রাজু চৌধুরী:  কাক ডাকা ভোরে বেশিরভাগ মানুষ তন্দ্রাচ্ছন্ন থাকে। অল্পসংখ্যক কিছু মানুষ ছাড়া বাকিরা ঘুমের ঘোরে থাকেন আর এই সময়টাকে কাজে লাগায় কিছু কৌশলী চোর। এমনই এক নারী চোরকে গ্রেপ্তার করেছে চট্টগ্রাম নগরীর ডবলমুরিং থানা পুলিশ।

রবিবার (২৮ মার্চ) চট্টগ্রাম নগরের উত্তর আগ্রাবাদ এলাকায় পুলিশের হাতে এক ‘নারী চোর’ ধরা পড়ার পর বের হয়ে এসেছে চুরির কৌশল ও বিভিন্ন তথ্য।

পুলিশ জানায়, আটককৃত ‘নারী চোরের’ নাম রাবেয়া আক্তার নেহা। ভোরে মানুষ যখন  নামাজ পড়তে বা  ব্যায়ামে আপন-মনে ব্যস্ত আর না হয় বেশিরভাগ ঘুমান এই সুযোগে বাসাবাড়িতে চুরি করেন রাবেয়া। কেউ সন্দেহ করতে না পারার জন্য রাবেয়া বোরকা পরে ভোরে চুরি করেন। তার বিরুদ্ধে দুইটি মামলা রয়েছে। এর আগেও দুইবার আটক করেছে পুলিশ। ছাড়া পেয়ে আবারও চুরি পেশায় জড়িয়ে পড়েন রাবেয়া।

ডবলমুরিং থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, আটককৃত রাবেয়া খুবই ধূর্ত ও পেশাদার চোর।

রবিবার ভোরে রাবেয়া নগরের উত্তর আগ্রাবাদ মোল্লাপাড়ার ফাতেমা মনজিলে চুরি করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়েন। পরে সেখান থেকে রাবেয়াকে আটক করে ডবলমুরিং থানা পুলিশ। ওসি মহসীন আরও জানান, সে সবসময় বোরকা পরে চুরি করে যেন কেউ চিনতে না পারে। এখন সে গর্ভবতী অবস্থায় চুরি করতে বের হয়। কেউ সন্দেহ করবে না আবার ধরা পড়লেও সহানুভূতি পাবে। তাই এই অবস্থাকে কাজে লাগিয়ে কৌশলে সে চুরি করে। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রাবেয়া জানায়, তিন বছরে তিনি কমপক্ষে ১০০টি চুরি করেছেন কিন্তু বাস্তবে এ সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে বলছে পুলিশ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত