প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সৌরভ গাঙ্গুলির অধীনে থাকতে চান না সিইও, বিসিসিআই থেকে পদত্যাগ!

স্পোর্টস ডেস্ক : পদত্যাগ করলেন বিসিসিআইয়ের প্রথম সিইও রাহুল জোহরি। বোর্ড সূত্রের খবর, বেশ কিছুদিন আগেই নিজের পদত্যাগ পত্র বোর্ড কর্তাদের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন রাহুল। তবে, এখনও সেই পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হয়নি। বোর্ড কর্তারা রাহুল জোহরির সঙ্গে আলোচনা চালাচ্ছেন বলে সূত্রের খবর।

বিসিসিআইয়ের টালমাটাল পরিস্থিতির সময় প্রথমবারের জন্য চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার বা সিইও পদটি তৈরি হয়। বোর্ডের প্রথম সিইও হিসেবে বেছে নেওয়া হয় সে সময় ডিসকভারি নেটওয়ার্কের শীর্ষকর্তা রাহুল জোহরিকে। ২০১৬ সালে রাহুল যখন প্রথমবার সিইও পদে আসীন হন, তখন বোর্ডের সভাপতি ছিলেন শশাঙ্ক মনোহর। সচিব ছিলেন বর্তমান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর। শশাঙ্ক-অনুরাগের অধীনে কাজ করার পর সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশিত প্রশাসক প্যানেলের অধীনেও কাজ করেছেন রাহুল জোহরি।

আসলে সিইও পদটি তৈরিই করা হয়েছিলো লোধা কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে। সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশিত প্রশাসক প্যানেল দায়িত্ব নেওয়ার পর সেই পদটির গুরুত্ব আরও বেড়ে যায়। কারণ, সেসময় বোর্ডের সভাপতি বা সচিব পদে কেউ ছিলেন না। রাহুল জোহরির হাত ধরে আর্থিকভাবে বড়সড় লাভেরও মুখ দেখে বোর্ড। তিনিই আইপিএলের সম্প্রচার স্বত্ত মোটা টাকায় বিক্রি করেন স্টার ইন্ডিয়ার কাছে। এই চুক্তিতে বোর্ডের কোষাগারে ঢোকে ১৬ হাজার ৩৪৮ কোটি টাকা। সিইও হিসেবে বেশ দাপটের সঙ্গেই কাজ করেছিলেন এতদিন।

সূত্রের খবর, অক্টোবরে সৌরভের নেতৃত্বে নতুন করে বোর্ড কমিটি নির্বাচিত হওয়ার পরই ইস্তফা দেওয়ার ব্যাপারে মনস্থির করেছিলেন জোহরি। বেশ কিছুদিন আগেই ইস্তফা দেন তিনি। এতদিন ধরে তার ইস্তফাপত্র আটকে। নাম জানাতে অনিচ্ছুক বোর্ডের এক কর্তা জানিয়েছেন, রাহুল জোহরির পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হবে। তবে, সেজন্য কিছুটা সময় লাগবে। এখনও আমরা ওর সঙ্গে আলোচনা করছি। রাহুলই প্রথম নন, সৌরভদের নতুন কমিটি দায়িত্ব নেওয়ার পর বোর্ডের চিফ ফাইনান্সিয়াল অফিসার সন্তোষ রাঙ্গনেকরও ইস্তফা দিয়েছেন। তবে, নোটিস পিরিয়ডে থাকাই এখনও কাজ চালিয়ে যেতে হচ্ছে তাকে।-সংবাদ প্রতিদেন

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত