প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

একান্ত সাক্ষাতকারে আতিকুল ইসলাম বললেন, ৯ মাস মাঠেই ছিলাম, প্রাধান্যের তালিকায় প্রথমেই ডেঙ্গু

সুজিৎ নন্দী: ঢাকা উত্তরের আওয়ামী লীগ প্রার্থী আতিকুল ইসলাম বলেছেন, নিরাপদ সড়ক থেকে শুরু সব ক্ষেত্রে বাসযোগ্য একটি নিরাপদ নগরী গড়ে তোলার বিষয়টিই আমাদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। দায়িত্ব নেওয়ার ৯ দিনের মাথায় প্রগতি সরণিতে একটি দুর্ঘটনায় এক ছাত্র মারা যায়, আমাকে মাঠে নামতে হয়। বনানীতে আগুনের ঘটনাসহ একের পরে এক ঘটনা ঘটতে থাকে। ঐ যে মাঠে নামলাম এখনো মাঠে আছি।

তিনি বলেন, আমার প্রাধান্যের তালিকায় প্রথমেই থাকবে ডেঙ্গু প্রতিরোধে এডিস মশার বিরুদ্ধে কার্যক্রম। এই কার্যক্রম ব্যাপক এবং এতে নগরের অন্যান্য সমস্যার দিকেও নজর পড়বে।

সাবেক এই মেয়র বলেন, জলাবদ্ধতার সমস্যা, পরিচ্ছন্নতা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনার ব্যাপারে জনগণকে সচেতন করা। ২৪টি পার্ককে জনগণের ব্যবহার উপযোগী ও আধুনিকায়নের উদ্যোগ নিয়েছিলাম, সেগুলোর কাজ শেষ করে একটি পরিণতির দিকে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি আমার জন্য অতিব জরুরি।

আরো বলেন, সময় হিসেবে আমার ৯ মাসের অভিজ্ঞতা হলো। এই দায়িত্ব পালন আমার জন্য খুবই চ্যালেঞ্জিং ছিল। নানা কিছুর মধ্য দিয়ে আমাকে যেতে হয়েছে। মেয়র হিসেবে যখন দায়িত্ব নিলাম তখন দেখলাম পদে পদে সমস্যা। ধীরে ধীরে কাটিয়ে উঠলাম।

আমি নির্বাচিত হওয়ার সময় যুক্ত হয়েছে ১৮টি নতুন ওয়ার্ড। সেগুলোর রাস্তা ড্রেন, ফুটপাত এসবের পরিকল্পনা করার কাজও শুরু করতে হয়েছে। নিজে দুর্ঘটনায় পড়ে পা ভেঙেছি, কিন্তু এরপরও পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করে গেছি। সবশেষে বলেন, গত ৯ মাস আমার অনুশীলন পর্ব বলতে পারেন। এ সময়ে আমি নিজেকে প্রস্তুত করেছি। অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি, ঢাকা শহরের চ্যালেঞ্জগুলো কী, তা বুঝতে পেরেছি।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত