প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আইএসের দক্ষিণ এশিয়া শাখাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা জাতিসংঘের

মাকসুদা লিপি: ইসলামিক স্টেটের দক্ষিণ এশিয়া শাখা আইসিলকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করল জাতিসংঘ। মঙ্গলবার রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত ১২৬৭ নম্বর কমিটি এই ঘোষণা করেছে। জইশ-ই-মহম্মদের প্রতিষ্ঠাতা জঙ্গি মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষণা করার ১৫ দিনের মধ্যেই আইএসআইএস-এর দক্ষিণ এশিয়া শাখাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করল নিরাপত্তা পরিষদ। সংবাদ প্রতিদিন

১২৬৭ নম্বর আল কায়দা নিষিদ্ধকরণ কমিটি জানিয়েছে, ইসলামিক স্টেট ইন ইরাক অ্যান্ড লেভান্ত খোরাসান-এ কাজকর্ম সবরকমভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হল। গোটা ভারতীয় উপমহাদেশ-সহ দক্ষিণ এশিয়াকে খোরাসান হিসেবে চিহ্নিত করে থাকে ইসলামিক স্টেট। এই নিষেধাজ্ঞার ফলে বিশ্বজুড়ে আইসিল-খোরাসানের যাবতীয় সম্পত্তি, অস্ত্র ও রসদের জোগান বাজেয়াপ্ত করা হল। সংগঠনটির জঙ্গিদের যাতায়াতের উপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল।

আমেরিকা-ভিত্তিক সন্ত্রাসবাদ বিশেষজ্ঞ গবেষক সংস্থা ডিফেন্স অ্যান্ড ন্যাশনাল সিকিউরিটি সেন্টার ফর স্ট্যাটেজিক অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজ জানিয়েছে, ২০১৪ সালেই তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান সংগঠনের নেতা হাফিজ সইদ খানকে খোরাসান সংগঠনের সুপ্রিমো বা সর্বোচ্চ নেতা হিসেবে নিযুক্ত করেছিল ইসলামিক স্টেট। এর অধীনে খোরাসানের এলাকা বাংলা-র দায়িত্ব পেয়েছে ইসলামিক স্টেট কমান্ডার তথা আমির। এই আমির পদাধিকারী নয়া জঙ্গি নেতার নাম, ‘আবু মহম্মদ আল বেঙ্গলি।’ এই নয়া আমির গোটা বাংলাদেশ, পশ্চিমবঙ্গ-সহ ভারতের বিস্তীর্ণ এলাকায় খিলাফত প্রতিষ্ঠা করতে যে আগ্রহী। এরা নিজেদের আমাক নিউজ এজেন্সি এবং দাবিক ম্যাগাজিনে হাফিজ সইদ খান এবং আবু মহম্মদ আল বেঙ্গলির নাম উল্লেখ করে তাদের দায়িত্ব নিয়ে বিস্তারিত জানিয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত