শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর, ২০২১, ০৭:১৯ বিকাল
আপডেট : ২৬ নভেম্বর, ২০২১, ০৭:১৯ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

[১] লক্ষ্মীপুরে নির্বাচনী প্রচারণার শেষ দিনে উৎসব-উত্তাপ

জাহাঙ্গীর লিটন : [২] আজ মধ্যরাত থেকে শেষ হচ্ছে লক্ষ্মীপুর পৌরসভা ও ২০টি ইউপি নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা। নির্বাচনী আচরণবিধি অনুযায়ী ভোট গ্রহণ শুরু হওয়ার ৩২ ঘণ্টা আগে থেকে কোনও প্রচার চালানো যাবে না। আগামী ২৮ নভেম্বের রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। শেষ মুহুর্তের প্রচার প্রচারণায় ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন প্রার্থীরা, আওয়ামী লীগে বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী থাকায় ভোট গ্রহণের সুষ্ঠু পরিবেশ নিয়ে প্রার্থী ও ভোটারদের মধ্যে রয়েছে শঙ্কা। নানা প্রতিশ্রুতি নিয়ে প্রাার্থীরা কর্মী-সমর্থকসহ হাট-বাজার এবং ভোটারের বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন। নির্বাচনী মাঠে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করায় যে কোনো মুহূর্তে সংঘাতের শঙ্কা কাজ করছে ভোটার ও প্রার্থীদের মধ্যে।

[৩] এদিকে ভোটের দিন পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ থাকবে কিনা সেটা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে প্রার্থী ও ভোটারদের মাঝে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায়। প্রতিদ্ধন্ধি প্রার্থীর সমালোচনায় ভোটের উত্তাপও ছড়ানো হচ্ছে কোথাও। ঘটছে সহিংসতার ঘটনা। এমন পরিস্থিতিতে সৎ ও যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে সুষ্ঠু ভোটের নিশ্চয়তা চান ভোটাররা।

[৪] জেলার নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন বলেন, শুক্রবার মধ্যরাত থেকে নির্বাচনী এলাকায় সব ধরনের প্রচার-প্রচারণা বন্ধ হয়ে যাবে। নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু রাখার জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পর্যাপ্ত সদস্য মাঠে নামছেন। সুষ্ঠু নির্বাচনী পরিবেশ নিশ্চিত করতে সকল ধরনের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। লক্ষ্মীপুর পৌরসভা ও রামগঞ্জে ২টি ইউনিয়নে ইভিএম ও বাকী ১৮টি ইউনিয়নে ব্যালট পেপারে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

[৫] পুলিশ সুপার ড. এ এইচ এম কামরুজ্জামান বলেন, নির্বাচনী এলাকায় এখনো শান্তিপূর্ণ পরিবেশে বিরাজ করছে। কেউ বিশৃঙ্খলা করতে চাইলে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। পুলিশ তৎপর রয়েছে, প্রতিটি কেন্দ্রকে গুরুত্বর্পণূ হিসেবে ধরে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানালেন তিনি।

[৬] জেলা প্রশাসক মো. আনোয়ার হোছাইন আকন্দ জানান, সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের লক্ষে নির্বাচন কমিশন, পুলিশসহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা মাঠে কাজ করছেন। আচরণবিধি লঙ্গন হলেই জরিমানা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ২৫ জন প্রার্থীর জরিমানা করায় পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক রয়েছে। প্রার্থীদের সঙ্গে সভা করে সুষ্ঠু ভোট অনুষ্ঠান করতে কোন ধরণের বিশৃঙ্খলা না করতে কঠোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

  • সর্বশেষ