প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মুক্তাগাছায় ইউপি নির্বাচনের শুরুতেই সহিংসতার ঘটনা

হজরত আলী, মুক্তাগাছা প্রতিনিধি : [২] তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে প্রচারণার শুরুতেই ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় সহিংস ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দের দিন ৭নং ঘোগা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. শরীফ আহমেদ উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে নির্বাচনী প্রতীক লাভের পর মোটরসাইকেল বহর নিয়ে ফেরার পথে পেছন থেকে তার কর্মীদের ওপর হামলা করা হয়।

[৩] এসময় বেশ কয়েক জন কর্মী আহত হন। মোটর সাইকেল ভাংচুর ও মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। এর প্রতিবাদে নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা কালীবাড়ীতে প্রায় দুই ঘন্টা ময়ময়নসিংহ-টাঙ্গাইল আঞ্চলিক মহসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

[৪] জানা যায়, শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চেয়ারম্যান প্রার্থী শরীফ আহমেদ বরাদ্দকৃত নির্বাচনী প্রতীক পেয়ে মোটর সাইকেল শোভাযাত্রাসহ নির্বাচনী এলাকায় ফেরার পথে উপজেলা পরিষদের সামনে পেছন থেকে বহিরাগত কিছু লোকজন লাঠিসোঠা নিয়ে শোভাযাত্রা বহরে হামলা চালায়। এতে শাহ আলম(২১), আল আমীন(২০) ও আশিক (২২)সহ কয়েকজন কর্মী আহত হন। হামলাকারীরা বহরের ৮টি মোটরসাইলেক ভাংচুর করে ও ১০টি মোবাইল ফোন সেট ছিনিয়ে নিয়ে যায় বলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শরীফ আহমেদ অভিযোগ করেন।

[৫] এর প্রতিবাদে ঐ প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা নিজ নির্বাচনী এলাকায় ফিরে স্থানীয় কালীবাড়িতে বেলা ১টার দিকে ময়মনসিংহ-টাঙ্গাইল আঞ্চলিক মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এসময় সড়কে দুই পাশে যানবাহনের জট লেগে যায়। খবর পেয়ে মুক্তাগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মাহমুদুল হাসান ও আওয়ামীলীগের নেতারা ঘটনাস্থলে গিয়ে বিচারের আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। দুপুর আড়াইটার দিকে অবরোধ তোলে নিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

[৬] মুক্তাগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান জানান, কালীবাড়ী এলাকায় বিক্ষুব্দ লোকজন সড়ক অবরোধ করে রাখার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিবেশ শান্ত করা হয়। এখন যান চলাচল স¦াভাবিক রয়েছে। হামলার ঘটনায় লিখিত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি উল্লেখ করে তিনি জানান, অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত