প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অদ্ভুত কর্মকাণ্ডে আসলেই বুঝতেছি না কে পাগল

আশরাফুল আলম খোকন, ফেসবুক থেকে, আমার মাঝে মধ্যে একটু গ্যাসের সমস্যা হয়। সব সময় ঔষুধও খেতে হয় না। বাইরের দেশের মানুষেরা অধিকাংশ সময় গ্যাস থেকে বাঁচতে স্পার্কিং ওয়াটার খায়। আমাদের দেশেও সুপার শপগুলোতে আছে। এটাকে বলা হয় বিশুদ্ধ পানি। “কার্বোনেটেড” বলে এই পানি খেলেই গ্যাসের ব্যথা কমে যায়।

একদিন গ্যাসের সমস্যা দেখা দেয়ায় একটি সুপারশপে গেলাম কিনতে। বললো স্যার, বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছি। জিজ্ঞেস করলাম, কেন ?? দোকানি বললো, মেজিস্ট্রেট সাহেব এসেছিলেন। একলাখ টাকা জরিমানা করেছেন এই পানি বেঁচি বলে। এটা নাকি বিয়ার। এতে নাকি এলকোহল আছে। এই কথা বিশ্বাস করতে কষ্ট হলো। পরে দোকানি জরিমানার কাগজ দেখালো।

আমি মুচকি হেসে চলে আসলাম দোকান থেকে। আমি না হয় মুচকি হেসে চলে এসেছি। সোশ্যাল মিডিয়ার এই যুগে মানুষ ট্রল করে, অট্টহাসি দেয়। সুযোগ পেলেই সরকারি কর্মকর্তাদের হেয় করার সুযোগ খোঁজে। এই রকম কিছু অদ্ভুত কর্মকান্ডের জন্য।
আমি জানিনা তাই গত কিছুদিন কয়েকজন ডাক্তার জিজ্ঞেস করেছি সীসাতে( হুক্কা) কি নেশা আছে নাকি? কারণ সিসার বিরুদ্ধে আমাদের দেশে অনেক অভিযোগ, অনেক অভিযান। মিডিয়াগুলো রসিয়ে রসিয়ে নিউজও প্রকাশ করে।

সবাই হেসে উড়িয়ে দিলো। বললো, তোমাদের দেশে কি সিগারেট উন্মুক্ত ? আমি বললাম হ্যা। বললো, সিসাতে নিকোটিন সিগারেটের চেয়েও অনেক কম থাকে। আমি বললাম, এলকোহল থাকে না ? উত্তর আসলো, তুমি কি পাগল হইছো ?

আসলেই বুঝতেছিনা কে পাগল,ঘাপলা’টা জানার অভাব, নাকি অন্য কোনখানে! গুরুতর অভিযোগগুলোই সামনে আনা উচিত। তবে পোলাপাইন সিগেরেটের ভিতর যেমন গাজা মিশায়, হুক্কাতে নিষিদ্ধ কিছু মিশালে সেটা অবশ্যই গুরুতর অপরাধ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত