প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কালকিনিতে বিএনপির অনুষ্ঠানে হামলাকারীদের বিচারের দাবি

এইচ এম মিলন:[২] বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদাজিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া-মোনাজাত অনুষ্ঠানে অতর্কিত হামলার ঘটনায় হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমুলক বিচারে দাবিতে মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলায় এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকালে উপজেলা বিএনপির সাবেক আন্তজার্তিক বিষয়ক সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান হিমু মালের বাড়িতে উক্ত এ সভা করা হয়।

[৩] অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে, উপজেলা বিএনপির সাবেক আন্তজার্তিক বিষয়ক সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান হিমু মালের উদ্যোগে বিএনপির নেতাকর্মীদের অংশগ্রহনে তার নিজবাড়ি কয়ারিয়া এলাকায় শেষ রমজানের দিন বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদাজিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া-মোনাজাত ও ইফতার পার্টি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

[৪] এ অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের যুগ্নসাধারন সম্পাদক কয়ারিয়া গ্রামের এবিএম মাহমুদ আলম সরদারকে দাওয়াত দেয়া হয়নি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাহমুদ আলম সরদারের নির্দেশে সোলাইমান, ইমরান, মারুফ ও মামুনসহ বেশ কয়েকজন মিলে ওই অনুষ্ঠানে হামলা চালিয়ে খাবার ছিনিয়ে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

[৫] এসময় তাদের বাঁধা দিলে হামলায় বিএনপি নেতা মাহাবুবুর রহমান হিমু মাল(৫৫), ছেলে তৌফিক(১৭) ও কলেজ পড়ুয়া মেয়ে সুমাইয়া রহমানকে(২৫) আহত হন। এ হামলার ঘটনায় কেন্দ্রীয় ছাত্রদল নেতা মাহামুদসহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে কালকিনি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন বিএনপি নেতা মাহাবুবুর রহমান হিমু মাল। এ হামলাকারীদের দ্রুত দৃষ্টান্তমুল বিচারের দাবিতে এক প্রতিবাদ সভা করা হয়।

[৬] ভুক্তভোগী বিএনপির নেতা মাহাবুবুর রহমান হিমু মাল বলেন, বিনা কারনে মাহামুদের নেতৃত্বে তার লোকজন আমার বাড়ির বিএনপির অনুষ্ঠানে হামলা করেছে। আমি নিরুপায় হয়ে থানায় অভিযোগ করেছি। মাহমুদসহ সকল হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমুলক বিচার চাই।

[৭] অভিযুক্ত কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের যুগ্নসাধারন সম্পাদক এবিএম মাহমুদ আলম সরদার ঘটনা অস্বীকার করে সাংবাদিকদের বলেন, হিমু মাল চরম অন্যায় করেছে। সে অনুষ্ঠানের ব্যানারে কয়ারিয়া ইউনিয়ন বিএনপির নাম ব্যবহার করে ইউনিয়নের কোন নেতাকর্মীদের দাওয়াত করেনি।

[৮] এ নিয়ে অন্যদের সাথে তার দ্বন্ধ হয়েছে। আমি উপস্থিত ছিলাম না। তবে বিএনপি নেতা খোকন তালুকদারের নির্দেশে আমার আপন ও চাচাতো ভাইকে অপমান করা হয়েছিল সে অনুষ্ঠানে।এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি ইশতিয়াক আসফাক রাসেল বলেন, এ বিষয় থানায় অভিযোগ হয়েছিল।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত