প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

করোনা পরিস্থিতি দেখে কোর্ট বাড়ানোর সিদ্ধান্ত: প্রধান বিচারপতি

সারাবাংলা: করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে সুপ্রিম কোর্টে বেঞ্চের সংখ্যা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

রোববার (২৩ মে) ভার্চুয়ালি আপিল বিভাগের শুনানি চলাকালে প্রধান বিচারপতি এ মন্তব্য করেন।

সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, ‘আমরা পরিস্থিতি মূল্যায়ন করেই সিদ্ধান্ত নিচ্ছি।’

সার্বিক পরিস্থিতি দেখে অ্যাটর্নি জেনারেল ও বারের সম্পাদকের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক নিয়মিত আদালত খুলে দেওয়া এবং হাইকোর্টের বেঞ্চ সংখ্যা বাড়ানোর দাবি করলে প্রধান বিচারপতি এ সব কথা বলেন।

ঈদুল ফিতরের ছুটির পর আপিল বিভাগের আজ প্রথম কার্যদিবস ছিল। বিচারিক কাজের শুরুতেই প্রধান বিচারপতি ভার্চুয়াল কোর্টে যুক্ত সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানান।

এ সময় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেন, ‘আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।’

এরপর তিনি বলেন, ‘বর্তমান করোনা পরিস্থিতি একটু উন্নতি হচ্ছে বলে আমাদের মনে হচ্ছে। এ হিসেবে আদালত খোলার ব্যাপারে আইনজীবীদের একটা দাবি রয়েছে। আগেও বলেছি, আপনারা বলেছিলেন পরিস্থিতি মূল্যায়ন করবেন। আমরা প্রত্যাশা করব একটা পজিটিভ দিক।’

তখন প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘পরিস্থিতি তো মূল্যায়ন করা হচ্ছে। এুট তো দেখতে পাচ্ছেন (কোর্ট বাড়ানো হয়েছে)। পরিস্থিতি মূল্যায়ন করিনি, এটা কি বলা যাবে?’

তিনি আরও বলেন, ‘শুনেন আজ জনকণ্ঠে দেখলাম বর্ডার এরিয়াতে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট (ধরন) দেখা যাচ্ছে ব্যাপকভাবে। সার্বিক পরিস্থিতি দেখেই এগোচ্ছি।’

অ্যাটর্নি জেনারেল ও বারের সম্পাদকের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেই কোর্ট বাড়ানো হবে বলেও জানান প্রধান বিচারপতি।

দ্বিতীয় দফা করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির পর থেকেই শারীরিক উপস্থিতিতে দেশের সর্বোচ্চ আদালত আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগে বিচার কাজ বন্ধ রয়েছে। তবে বিশেষ ব্যবস্থায় সীমিত পরিসরে ভার্চুয়ালি আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের কয়েকটি বেঞ্চে বিচার কাজ চলছে। করোনা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হওয়ায় বর্তমানে হাইকোর্ট বিভাগে বেশকিছু বেঞ্চ বাড়ানো হয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত