প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রবিউল আলম: প্রতিপক্ষ ছাড়া সরকার জনগণের হয় না, অনুসন্ধানী রিপোর্ট ছাড়া সরকার সঠিক পথ আবিষ্কার করতে পারে না

রবিউল আলম: একটি দেশের সব মানুষ ভালো হয়ে গেলে প্রশাসনের কি প্রয়োজন আছে?  সব মানুষ সরকারের হয়ে গেলে রাজনীতি কি প্রয়োজন? সব সাংবাদিক, সংবাদপত্রের সমর্থন সরকার চাইলে মতপ্রকাশ কিংবা গণতন্ত্রের কথা না বলাই ভালো! মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফলতার পেছনে সমালোচকদের ভূমিকাই বেশি। তেল মারা লেখা, তেল মারা রাজনীতি, তেলের ড্রাম নিয়ে আমলারা ক্ষমতা ছাড়া অপেক্ষায় থাকে না। রোজিনা ইসলামের অপরাধ সম্পর্কে আমি পুরোপুরি জানি না, সময়ে সব প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে। তবে অনুসন্ধানী রিপোর্ট ছাড়া বাংলাদেশ দুর্নীতিমুক্ত করা যাবে না। সরকার কখনো বলেনি, দেশে দুর্নীতি নেই। সংবাদপত্রের অনুসন্ধানী রিপোর্ট করতে গিয়েও দুর্নীতি হচ্ছে, দুর্নীতি দমন কমিশনের দুর্নীতি সন্ধান ও অনুসন্ধানী রিপোর্ট দিচ্ছে, দিচ্ছে বিচার বিভাগের সন্ধান। সংবাদপত্রের, সাংবাদিকদের দুর্নীতির সন্ধান কি অনুসন্ধানী রিপোর্টে আসেনি? প্রশাসনের, রাজনীতির, রাষ্ট্রের রন্ধে রন্ধে দুর্নীতির সন্ধান অনুসন্ধানী রিপোর্ট ছাড়া সরকারকে কে দিতে পারবো? দুর্নীতিকে মুক্ত করতে দুর্নীতি হচ্ছে। মাদক নিয়ন্ত্রণে, মাদক বিস্তার হচ্ছে। জেলখানায় অনেক সরকারি অফিসার জব্দ কৃত মাল জমা না দিয়ে জেলে আছে।

অনুসন্ধানী রিপোর্টে অনেক নিরপরাধ জেলখাটা আসামি বেরিয়ে আসছে। অনুসন্ধানী রিপোর্ট সরকারি দল ও মতের চামচামি দিয়ে হবে না, আক্রোশ, সাহস, দ্বিমত থাকতে হবে। অনেকটা নিজের অজান্তেই সরকারের সহায় হয়ে পরে অনুসন্ধানী রিপোর্ট ও বিরোধী রাজনৈতিক দল। গঠনমূলক বিরোধিতাই পারে সরকারকে সতর্ক করতে। যে সরকার ভালোমন্দ বাছাই করতে পারে, সত্যের সন্ধান করতে পারে, সেই সরকারই জনগণের গ্রহণযোগ্য হয়। শেখ হাসিনার সরকার সেই পরীক্ষায় পাস না করলে, দীর্ঘ সময় ক্ষমাতায় থাকতে পারতো না। লেখক : মহাসচিব, বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতি

সর্বাধিক পঠিত