প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দেবিদ্বারে জোড়া খুনের ঘটনায় দুই হত্যা মামলা-গ্রেফতার এক

শাহিদুল ইসলাম:[২] কুমিল্লার দেবিদ্বারে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে মেয়েদের উত্ত্যক্ত করা নিয়ে দু’গ্রুপের তরুনদের মধ্যে সংঘর্ষে দু’জন নিহত হওয়ার ঘটনায় ২৭ জনকে অভিযুক্ত করে পৃথক দু’টি মামলায় হয়েছে।

[৩] ওই মামলার আসামী মোঃ বাছির মিয়া (২৩) কে গ্রেপ্তার পূর্বক শুক্রবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ।

[৪] গত (বৃহস্পতিবার) রাতে মুরাদনগর উপজেলার ১৪নং পূর্ব নবীপুর ইউনিয়নের গুঞ্জর গ্রামের নিহত কোম্পানীগঞ্জ বদিউল আলম উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র রাহিম হাসান (১৭)’র পিতা মোঃ নজরুল ইসলাম ওরফে আবু হানিফ বাদী হয়ে ৬ জনকে নামে এবং ৮/৯ জনকে অজ্ঞাতনামা করে ১৫জনকে আসামী করে ।

[৫] এবং দেবিদ্বার উপজেলার সুবিল ইউনিয়নের আব্দুল্লাহপুর গ্রামের নিহত সাইফুল ইসলাম (২০)’র পিতা মো. হাবিবুর রহমান বাদী হয়ে ১০/১২ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে দেবিদ্বার থানায় পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করেছেন।

[৬] গতকাল জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা আব্দুল্লাহপুর গ্রামের কনের বাবা মো. জাকির হোসেন এবং জীবনপুর গ্রামের ইব্রাহীম মিয়ার ছেলে মো. বাছির মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মো. জাকির হোসেনকে ছেড়ে দিলেও মো. বাছির মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্টতা পেয়ে ওই মামলার আসামী হিসেবে মোঃ বাছির মিয়া (২৩) কে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

[৭] মুরাদনগর উপজেলার গুঞ্জর গ্রামের নিহত রাহিমের পিতা মোঃ নজরুল ইসলাম ওরফে আবু হানিফ’র ছেলে হত্যায় জড়িত সকল আসামীদের গ্রেফতার পূর্বক বিচারের দাবী জানান।শুক্রবার বিকালে আবদুল্লাহপুর গ্রামে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, খুনের ঘটনায় জীবনপুর, আব্দুল্লাহপুর পুরো এলাকা এখনও থমথমে। ইনসাফ মার্কেটের সামনের সড়কে হতাহতদের সুকনো রক্তের ছাপ এখনো বিদ্যমান রয়েছে। ব্যবসায়ীরা দোকানপাট বন্ধ রেখেছে।

[৮] এলাকার সাধারন কেউ কেউ মুখ খুলছেনা। ওই এলাকায় পুলিশের উপস্থিতিও দেখা যায়। বাড়িঘরও প্রায় লোকশূণ্য। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক আব্দুল্লাহপুর গ্রামের ব্যক্তি জানান, মুরাদনগর উপজেলার গুঞ্জর গ্রাম, রসুলপুর ইউনিয়নের জীবনপুর গ্রাম এবং আব্দুল্লাহপুর গ্রাম দুই উপজেলার সীমান্তবর্তী এবং ৩টি গ্রামই ইনসাফ মার্কেটের ৫০০ গজের মধ্যে অবস্থিত।

[৯] গুঞ্জর গ্রামের ইভটিজারদের অত্যাচারে জীবনপুর, আব্দুল্লাহপুর গ্রামের মেয়েরা অতিষ্ঠ ছিল। কিছুদিন পূর্বে গুঞ্জর গ্রামের তরুণ কিশোররা এ এলাকার মেয়েদের উত্ত্যক্ত করার ঘটনায় এ অনাকাঙ্খীত ঘটনা ঘটেছে।

[১০] স্থানীয়রা আরও অভিযোগ করেন,পাশ্ববর্তী মুরাদনগর উপজেলার গুঞ্জর এলাকার বখাটেরা আবদুল্লাহপুর (জীবনপুর) এলাকায় এসে নানা অপকর্মে জড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে দু’গ্রামের মধ্যে একাধিকবার সালিশ হয়েছে। তারপরও তারা এ এলাকায় এসে ইভটিজিং, চুরিসহ কিশোর গ্যাং তৈরি করে নানা অপকর্ম চালিয়ে আসছিল।

[১১] দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচাজর্ (ওসি) মো. আরিফুর রহমান শনিবার দুপুরে জানান, ‘বিয়ে বাড়িতে নাচ-গান করতে এসে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ২ যুবকের নিহতের ঘটনায় দেবিদ্বার থানায় ৬ জনের নামে এবং অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জন দেখিয়ে পৃথক ২টি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।

[১২] এজাহার ভুক্ত আসামী মোঃ বাছির মিয়াকে প্রেপ্তার পূর্বক কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরন করেছি। ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন ও বাকী আসামীদের গ্রেপ্তার অভিযান অব্যাহ আছে।সম্পাদনা:অনন্যা আফরিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত