প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বরিশালে ভাতিজিকে ধর্ষণের দায়ে চাচার যাবজ্জীবন

ডেস্ক রিপোর্ট: বরিশালের মুলাদী উপজেলার ডিক্রিরচর গ্রামে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের ফলে গর্ভবতী হওয়ার মামলায় ইদ্রিস হাওলাদার নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সাথে আসামিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৩ বছরের দন্ডাদেশ দেয়া হয়েছে।

বরিশালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবু শামীম আজাদ সোমবার দুপুরে আসামীর উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।

দন্ডপ্রাপ্ত ইদ্রিস হাওলাদার একই এলাকার বাসিন্দা মৃত কছির উদ্দিনের ছেলে এবং নির্যাতিতার চাচাতো চাচা। ঘটনার সময় নির্যাতিতা মুলাদীর ডিক্রিরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রী ছিল।

ট্রাইব্যুনালের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) নাজমা বেগম শিউলী জানান, নির্যাতিতা তার সৎ মায়ের সাথে মুলাদীর ডিক্রিরচর গ্রামে থাকতো। তার বাবা ঢাকায় কাজ করতেন। সৎ মা বকাঝকা করলে নির্যাতিতা শিশুটি আসামী ইদ্রিসের ঘরে গিয়ে আশ্রয় নিতো। ২০১৫ সালের ২৫ মার্চ সৎ মায়ের হাতে মার খেয়ে ইদ্রিসের ঘরে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে নির্যাতিতা। ওই রাতে শিশুটিকে জোরপূর্বক ধর্ষন করে ইদ্রিস। এ ঘটনা কাউকে বললে ওই শিশু ও তার বাবাকে (শিশুটির বাবা) হত্যার হুমকি দেয় সে।

এর কিছুদিন পর সৎ মা নির্যাতিতার শারীরিক পরিবর্তন দেখে শিশুটিকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সব ঘটনা বরে দেয় বলে দেয় সে। ওই বছরের ৩০ জুলাই শিশুটির বাবা বাদী হয়ে ইদ্রিসকে একমাত্র আসামি করেন। একই বছরের ৫ সেপ্টেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মুলাদী থানার এসআই ফারুক হোসেন খান ইদ্রিসকে একমাত্র অভিযুক্ত করে আদালতে এই মামলার অভিযোগপত্র জমা দেন। পরে ট্রাইব্যুনালে ৬ জনের সাক্ষ্যগ্রহন শেষে বিচারক ওই রায় ঘোষনা করেন। বাংলাদেশ প্রতিদিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত