প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] হরিণাকুন্ডু পৌরসভা নির্বাচনে আগাম প্রচারনায় মাঠে সম্ভাব্য প্রার্থীরা

মাহফুজুর রহমান: [২] আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন দলের একাধিক সম্ভাব্য মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার আশায় ইতোমধ্যে নির্বাচনী মাঠে নেমে পড়েছেন। নির্বাচনকে ঘিরে দলীয় মনোনয়ন পেতে প্রার্থীরা নিজ নিজ দলের নেতাদের সঙ্গে বিভিন্ন ভাবে যোগাযোগ চালাচ্ছেন। সর্বত্রই আলোচনা হচ্ছে কে পাচ্ছেন মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন।

[৩] সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে নিজেদের পরিচিতি তুলে ধরার জন্য পৌরসভার ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ভোটারদের সাথে মতবিনিময় চালিয়ে যাচ্ছেন। নিজেদের প্রার্থীতা জানান দেওয়ার জন্য পৌর শহরে মতবিনিময় ও মোটরসাইকেল শোডাউন করতে দেখা গেছে। আবার কেউ পৌর নির্বাচনী এলাকার বিভিন্ন গ্রামে, মহল্লায়, পাড়ায়, ওয়ার্ডে ছোট ছোট সভা করে ভোটের কর্মী ও সমর্থকদের সংগঠিত করছেন। পৌরসভার উন্নয়নে ভোটারদের নানা নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন।

[৪] ২০০২ সালে প্রতিষ্ঠিত হরিণাকুন্ডু পৌরসভার মোট ভোটার ১৭ হাজার ২৯৬ জন। সর্বশেষ ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর তৃতীয় শ্রেণির এ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে আট হাজার ১৭৫ ভোট পেয়ে জয়ী হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী শাহিনুর রহমান রিন্টু।

[৫] হরিণাকুন্ডু উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. নূর-উল্লাহ জানান, আগামী নভেম্বরে তফসিল ঘোষণা এবং ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভবনা রেেয়ছে। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নির্দেশনায় সব ধরনের প্রস্ততি সম্পন্ন করা হয়েছে।

[৬] পৌরসভায় সম্ভাব্য মেয়র তালিকায় এগিয়ে রয়েছেন যুবকেরা। বিগত ২ বার নির্বাচনে মেয়র পদটি দখল করেছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী। রাজনৈতিক ভাবে পৌরসভাটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিধায় আওয়ামী লীগ ক্লিন ইমেজের কাউকে মনোনয়ন দিতে পারেন।

[৭] আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ফারুক হোসেন জানান, দলীয মনোনয়ন পেলে তিনি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন। হরিণাকুন্ডু পৌরসভাকে দ্বিতীয় শ্রেণিতে উন্নীত করে পৌরবাসীর সহায়তায় মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত, দুর্ণীতিমুক্ত, আধুনিক মডেল পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করবেন তিনি।

[৮] মনোনয়ন প্রত্যাশী সাইফুল ইসলাম (টিপু মল্লিক) দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচিত হলে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় নাগরিক সেবা পৌঁছে দিতে মেয়র হিসেবে নয়, একজন সেবক হিসেবে পৌরবাসীর পাশে থাকতে চান।

[৯] আরেক মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহিনুর রহমান রিন্টু মেয়র হিসেবে পৌরসভার ৯ ওয়ার্ডে অনেক উন্নয়ন করেছেন দাবি করে এবারও দলীয় মনোনয়নের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী তিনি।

[১০] হরিণাকুন্ডু উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহবায়ক তাইজাল হোসেন বলেন, গত দু’বারের পরাজিত প্রার্থী পৌর বিএনপি’র আহবায়ক জিন্নাতুল হক খানকে পৌর নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী হিসেবে চুড়ান্ত করেছে দলটি। বিএনপি নির্বাচনে গেলে দলীয় মনোনয়নের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী বলে জানান জিন্নাতুল হক খান।

হরিণাকুন্ডু উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ মশিউর রহমান জোয়ার্দ্দার বলেন, পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে সম্ভাব্য দলীয় প্রার্থীদের অতীত ও বর্তমান কর্মকান্ড বিবেচনা করা হবে। এক্ষেত্রে জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য, জনপ্রিয়, সৎ ও ক্লিন ইমেজের প্রার্থীর নাম সুপারিশ করে কেন্দ্রে প্রস্তাব করা হবে।

[১১] তথ্য মতে জানা গেছে, নিয়ম অনুযায়ী আগামী ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে অথবা জানুয়াফার মধ্যেই ভোট হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত