প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দিনাজপুরে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ছাত্রীর সঙ্গে শিক্ষকের অনৈতিক সম্পর্ক

সোহাগ গাজী, দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলায় অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীর (১৪) সঙ্গে অবৈধভাবে মেলামেশা করার সময় এলাকাবাসীর হাতে ধরা পড়েছেন এক শিক্ষক।

উপজেলার ফতেজংপুর ইউনিয়নের হাসিমপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসীর হাতে ধরা পড়া মো. লিখন ইসলাম (২৮) প্রাইভেট প্রতিষ্ঠান হাসিমপুর মডেল স্কুল এন্ড কলেজের সহকারী শিক্ষক।

একই বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীর সঙ্গে ছাত্রীর বাড়িতে অবৈধভাবে মেলামেশার সময় এলাকাবাসীর হাতে ধরা পড়েন তিনি। তবে এ ঘটনায় কোনো পক্ষ থেকেই থানায় কোনো অভিযোগ করেনি।

এ ঘটনায় শিক্ষক লিখন ইসলামকে বরখাস্ত করা হয়েছে। হাসিমপুর মডেল স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক আব্দুল্লাহ জানান ঘটনা ঘটার সঙ্গে সঙ্গে তাকে বরখাস্ত করা হয়। জানাগেছে ওই শিক্ষক উপজেলার আলোকডিহি ইউনিয়নের কিষ্টহরি এলাকার কাউয়াশা পাড়ার বাসিন্দা এবং সে দুই সন্তানের জনক।

ছাত্রীর চাচা বলেন, সোমবার সন্ধায় ওই শিক্ষককে আমার ভাতিজীর সঙ্গে আমাদের বাড়িতে হাতেনাতে আটক করি। এরপর তাকে পুলিশে দিতে চাইলে স্থানীয় প্রতিনিধিরা এসে কিছু টাকা নিয়ে বিষয়টি ঘরোয়া ভাবে মিটমাট করার কথা বলে। পরে বিষয়টি কোনো টাকা পয়সা ছাড়াই ও ওই শিক্ষকের কোনো শাস্তির ব্যবস্থা না করে ব্যাপারটি মিমাংসা করে।

এ ঘটনার পর আমার ভাতিজী মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ে এবং সে ওই শিক্ষকে বিয়ে করবে বলে জেদ ধরে বসে। পরে আমরা মানসম্মানের কথা চিন্তা করে তাকে জোড় করে তার বাবা-মার কাছে ঢাকা পাঠিয়ে দেই। সম্পদনা : রাকিবুল

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত