প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পূবাইলে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে কলেজ ছাত্রী অপহরণের অভিযোগ

যুগান্তর : গাজীপুরের পূবাইলে কলেজ ছাত্রীকে অপহরণ করে শ্লীলতাহানির অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় যুবলীগ নেতার শুক্কুর আলী বুলুর বিরুদ্ধে।

গাজীপুরের কালীগঞ্জ থেকে অপহরণ করা ওই ছাত্রীকে পূবাইলের সুটিংস্পট এলাকা বাড়ইবাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

টঙ্গী সরকারি কলেজের ওই ছাত্রীকে বুধবার রাত ৮টায় পূবাইল থানার ৪১নং ওয়ার্ডের বাড়ইবাড়ি গিন্নীরটেক এলাকা থেকে জনতা উদ্ধার করে।

এ সময় ধাওয়া খেয়ে কালীগঞ্জ পৌর এলাকার ৫নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি শুক্কুর আলী বুলু(৩২) মোটর সাইকেলে করে পালিয়ে যায়।

তিনি কালীগঞ্জ পৌরসভার বালিগাঁও এলাকার মৃত আবদুল আলীর ছেলে।

পূবাইল থানার ওসি নাজমুল হক ভূঁইয়া জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে অপহরণ, শ্লীলতাহানির অভিযোগে শুক্কুর আলী ও তার সহযোগী আলীকে আসামি করে অপহৃত ওই ছাত্রী বুধবার বিকেলে পূবাইল থানায় একটি মামলা করেছেন।

অপহৃত ওই ছাত্রী যুগান্তরকে বলেন, আমার ভাইয়ের মামলার তদবির করতে স্থানীয় এমপির সঙ্গে দেখা করাবে বলে মোটর সাইকেলে তুলে নিয়ে পূবাইলের ওই এলাকায় একটি সুটিংস্পটের গেইট খুলে ভিতরে ঢুকার সময় পিছন থেকে নেমে দৌড়ে চিৎকার দিলে জনতা আমাকে উদ্ধার করে পুলিশ খবর দেয়।

ওই সময় শুক্কুরকে মোবাইলে বলতে শুনেছি আলী গেইট খোল। খবর পেয়ে পূবাইল থানার পুলিশ আমাকে থানায় নিয়ে আসেন।

মামলা না করার জন্য কালীগঞ্জের অনেকে নেতাই থানায় এসে আমাকে হুমকি-ধমকি দিয়েছে। বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছি। আমার মা-বাপ নেই। আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।

যুবলীগ নেতা শুক্কুর আলী বুলুর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান- মেয়েটির কোন থাকার জায়গা নেই বলে আমাকে জানালে আমি রাতে মোটর সাইকেলে পূবাইলের শাহীন সুটিংস্পটে একটি রুম ভাড়া করে সেখানে রেখে আসতে গিয়েছিলাম।

মেয়েটি গেইটের সামনে থেকে দৌড়ে পালালে আমিও চলে আসি। আমার বিরুদ্ধে করা অভিযোগ মিথ্যা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত