প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বরিশালে পাইকারি বাজারে কমলেও খুচরা বাজারে ইলিশের দাম চড়া

মাজহারুল ইসলাম : বরিশালে ইলিশের পাইকারি বাজারে দাম কিছুটা কমলেও খুচরা বাজারে দাম কমেনি। ঈদুল আজহার পর পোর্ট রোডের পাইকারি ইলিশ মোকামে প্রতিদিন ৫’শ থেকে হাজার মণ ইলিশ আসছে। এর বেশিরভাগ ইলিশই গভীর সাগরের। জেলে ও ইলিশ ব্যবসায়ীদের মতে, ঘর গাঙ্গ মানে ভেতরের নদীতে এখনও পর্যাপ্ত ইলিশ পড়তে শুরু করেনি। সমকাল

সোমবার পোর্ট রোডস্থ ইলিশ মোকামসহ নগরীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, ৫’শ থেকে ৭’শ  গ্রাম ওজনের ইলিশ ৪৫০ থেকে ৬০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এক কেজি বা তার বেশি সাইজের ইলিশ প্রতিকেজি হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আমদানি বাড়লেও দাম কেন কমছে না জানতে চাইলে পাইকারি ইলিশ মোকামের আড়তদার জহির সিকদার জানান, সাগর থেকে যে ইলিশ আসছে তার দুই-তৃতীয়াংশ যাচ্ছে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায়। যথাযথভাবে ইলিশের বাজার মনিটরিং ব্যবস্থা না থাকায় খুচরা বাজারে ইলিশের দাম কমছে না। তার মতে, উপকূলীয় নদীগুলোতে যখন ব্যাপকভাবে ইলিশ ধরা পড়তে শুরু করবে, তখন খুচরা বাজারে দাম কমবে।

বরিশাল মৎস্য আড়তদার সমিতির সভাপতি অজিৎ দাস মনু জানান, ঈদের পর থেকে ইলিশের আমদানি দ্বিগুণ বেড়েছে। সোমবার প্রায় ৬’শ মণ ইলিশ আমদানি হয়েছে বরিশালের মোকামে। রোববার এসেছিলো সাড়ে ৪’শ মণ। তবে শনিবার ইলিশের আমদানি হয় রেকর্ড পরিমাণ ১ হাজার মণের বেশি। তিনি বলেন, পাইকারি বাজারে সোমবার ৬শ’ থেকে ৯শ’ গ্রাম ওজনের ইলিশ প্রতি মণ বিক্রি হয়েছে ৩৬ হাজার টাকা। যা রোববার  ছিলো ৩৩ হাজার টাকা। আর শনিবার বিক্রি হয়েছে মণপ্রতি ৩০ হাজার টাকা, যা ঈদের আগের তুলনায় অনেক কম। কেজি সাইজের ইলিশ সোমবার বিক্রি হয়েছে প্রতি মণ ৪২ হাজার টাকা। রোববার ও শনিবার একই সাইজের ইলিশ অবশ্য ২ হাজার টাকা কমে ৪০ হাজার করে মণ বিক্রি হয়েছে। স্থানীয় বাজারে ইলিশের দাম কেন কমছে না- জানতে চাইলে অজিৎ দাস বলেন, বরিশালের বাইরে চালান বেশি হওয়ার কারণে দাম কমছে না। তবে স্থানীয় বাজারে সাগরের মাছের চাহিদাও কম।

এমআই/এসবি

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত