প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গায়ের জোরে নিজের সন্তানদের প্রার্থী বানানোয় কংগ্রেস নেতাদের সমালোচনা রাহুলের

আসিফুজ্জামান পৃথিল : চরম ব্যর্থতার পর্যালোচনা করতে শনিবার এক বৈঠকে মিলিত হন কংগ্রেস নেতারা। নেতারা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, তাঁরা রাহুলের পদত্যাগের প্রস্তাবকে সর্বসম্মত ভাবে প্রত্যাখ্যান করেছেন। কিন্তু ৪৮ বছরের নেতা পিছিয়ে আসতে চাননা। কংগ্রেসের বাজে ফলাফলের পরে দলের ভেতরেও সমস্যা তৈরি হয়েছে। চার ঘণ্টার বৈঠকে রাহুল গান্ধী কয়েকজন জেষ্ঠ্য কংগ্রেস নেতাকে কড়া কথাও বলেন। সূত্র থেকে জানা যায়, তিনি তাঁদের উদ্দেশে স্পষ্ট ভাষায় বলেন, তাঁরা নিজেদের ছেলেদের নির্বাচনী প্রার্থী হিসেবে ‘পুশ’ করেছেন। এনডিটিভি

রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের ছেলে বৈভব যোধপুরে ২.৭ লাখেরও বেশি ভোটে হেরে যান বিজেপি প্রার্থী গজেন্দ্র সিংহ শেখাওয়াতের কাছে। যদিও মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথের ছেলে নকুল নাথ ছিনদ্বারা লোকসভা কেন্দ্রে জয়ী হন কংগ্রেসের টিকিটে। পি চিদাম্বরমের ছেলে কার্তি চিদাম্বরমও তামিলনাডুর শিবগঙ্গা কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছেন। রাহুলের স্পষ্ট কথার পিছনে অন্যতম কারণ ছিল, তাঁর বিশ্বাসভাজন উপদেষ্টা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার একটি মন্তব্য। দলে স্থানীয় নেতৃত্বকে আরও শক্তিশালী করার ব্যাপারে ওই মন্তব্য করেন সিন্ধিয়া। তবে রাহুল কারও নাম নেননি বলেই জানা গেছে।
স‚ত্র বলছে, পি চিদাম্বরম রাহুলকে পদত্যাগ না করার ব্যাপারে অনুরোধ জানাতে গিয়ে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন। তিনি বলেন, এর ফলে অনেক সমর্থক, বিশেষত দক্ষিণের, যারা কংগ্রেসকে ভোট দিয়েছে তারা কোনও ‘চ‚ড়ান্ত সিদ্ধান্ত’ নিতে পারে রাহুল পদত্যাগ করলে। রাহুল একথা অবশ্য বারবারই পরিষ্কার করে বলেছেন যে, তিনি মোটেই অদৃশ্য হয়ে যাচ্ছেন না এবং দলের হয়ে তাঁর কাজ তিনি চালিয়ে যাবেন। প্রতিবাদী কংগ্রেস নেতারা প্রশ্ন করেন, ‘যদি তুমি না হও, তবে কে?’’ এ প্রসঙ্গে প্রিয়ঙ্কা গান্ধীর নাম উঠে এলে রাহুল বারবার বলতে থাকেন, ‘আমার বোনকে এর মধ্যে টানবেন না।’ তিনি জানিয়ে দেন, ‘এটা জরুরি নয় যে, সভাপতি গান্ধী পরিবারের কাউকেই হতে হবে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত