প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নাটক প্রতি কত টাকা পান এটিএম শামসুজ্জামান?

বিনোদন প্রতিবেদক: অভিনেতা শামীম আহমেদ। তার আসল নাম শামীম হোসেন হলেও অনেকেই তাকে শামীম আহমেদ নামেই চেনেন বা জানেন। ১৭ বছরের ক্যারিয়ারে এক হাজারেরও বেশি নাটক এবং ২৬টিরও বেশি সিনেমায় কাজ করেছেন তিনি। নাটক কিংবা সিনেমাতে তাকে কমেডিয়ান চরিত্রেই বেশি দেখা যায়। বিনোদন বিভাগের সঙ্গে পেছনের গল্প নিয়ে কথা বলেন কমেডিয়ান এই অভিনেতা।

১৯৯৯ সালে ‘বন্ধন’ ধারাবাহিক নাটকের মাধ্যমে অভিনয়ের যাত্রা শুরু তার। তারপর একে একে হেটে চলেছেন অভিনয়ের পথে। কাজ করেছেন অসংখ্য নাটক ও চলচ্চিত্রে। ২০ বছরের ক্যারিয়ারে অনেক তারকা ও গুণী শিল্পীদের সঙ্গে অভিনয়ের সুযোগ হয়েছে তার। আমাদের ইন্ডাস্ট্রির এক বর্ষীয়ান অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান। তাকে নিয়ে কমডিয়ান এই অভিনেতা বলেন, আমি অনেক অনেক বড় অভিনেতা চোখের সামনে দেখেছি। উনাদের দেখে দেখে একটা জিনিস বুঝেছিলাম অভিনয় জিনিসটা আসলে এত সহজ না। উপর ওয়ালা যদি স্বয়ং নিজে হাত না দেয় তাহলে কখনো সম্ভব না।

অভিনয়ে একজন ম্যাজিশিয়ান আছে আমাদের। এটিএম শামসুজ্জামান। আমার খুব প্রিয় নানা। তার কথা যদি বলি তবে মন খারাপ হয়ে আসে। প্রায় ষাট বছরেরও বেশি সময় ধরে তিনি এই লাইনে। কী না করেছেন। অভিনয়, লেখা, পরিচালনা, প্রযোজনা। কী তার মন-মানসিকতা। বিরাট বটবৃক্ষ। এই লোকটা ২০-৩০ হাজার টাকা পায় এখন নাটকে। সেটাও কতো কাহিনি করে। এই দেশে অভিজ্ঞতার দাম নেই। গ্ল্যামার আর নায়ক-নায়িকা হওয়াটাই বড় কথা। নইলে যেখোনে নতুন একটা ছেলেমেয়ে হুট করেই এসেই দিনে ৩০ করে পারিশ্রমিক নেয় সেখানে ষাট বছর ধরে অভিনয় করা একজন মানুষের পারিশ্রমিক তার চেয়ে কম কী করে হয়! তার নাম নিলেই তো ৫০ বলা উচিত। এসব সিস্টেম নেই বলেই এই দেশে নাটকের মান বাড়ে না।

তবে আমার মন খারাপ হলেও একটা বিষয় ভেবে শান্তি পাই। যারা দিতে পারে আর নিতে পারে এটা তাদের ব্যাপার। কিন্তু আমরা কম খাবো, বেশি দিন বাঁচবো। বেশি খাওয়ার জন্য ঠাস করে পড়ে যাবো না। ২০ বছরে গ্ল্যামার তো আর কম দেখলাম না। অনেককে আজকাল দূরবীন দিয়েও মিডিয়াতে দেখা যায় না। আমি ছোট মানুষ, করে খাচ্ছি এখনো।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত