প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর অজুহাত খুঁজছে বিএনপি: কাদের

সমকাল  :  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘নিশ্চিত পরাজয় হবে জেনে নির্বাচন নিয়ে মিথ্যাচার ও ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলছে বিএনপি। দিন যতই যাচ্ছে, ততই তারা জনগণ থেকে আরও বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে। ভোটের বাজারে তাদের ভাঙাহাট জমছে না। তাদের কোনো নেতা মাঠে নেই, আছেন কূটনীতিক ও মিডিয়ার সঙ্গে। আর অবান্তর ও ভুয়া অভিযোগ তুলে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর অজুহাত খুঁজছেন তারা।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে নোয়াখালী-৫ আসনের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল চরফকিরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বাজারে নির্বাচনী পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন। এদিন ভূমিহীন বাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে তিনি গণসংযোগ করেন।

এ আসনে বিএনপির প্রার্থী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের বিভিন্ন অভিযোগ সম্পর্কে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তিনি (ব্যারিস্টার মওদুদ) হলেন বসন্তের কোকিল। নির্বাচন এলে বসন্তের কোকিলের মতো এলাকায় আসেন। আবার নির্বাচন চলে গেলে তিনিও কেটে পড়েন। তিনি এলাকার জনগণকে যত প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তার কিছুই পূরণ করতে পারেননি।’

কোম্পানীগঞ্জের চরফকিরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বাজার এলাকায় গণসংযোগের সময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘এখানকার মানুষকে জলোচ্ছ্বাসের সঙ্গে যুদ্ধ করে চলতে হয়। রাস্তাঘাট ছিল না, বিদ্যুৎ ছিল না, স্কুল ছিল না। আমি বহুবার কাদা ভেঙে হেঁটে এখানে এসেছি। মওদুদ আহমদ ২২ বছর ক্ষমতায় ছিলেন। এখানকার জনগণের জন্য তিনি কিছুই করেননি। এলাকার যত উন্নয়ন আমি করে দিয়েছি। ৩৩৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নদীভাঙন রোধ করেছি।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে জয়ী হলে চরাঞ্চলে শতভাগ পরিবারে গ্যাস ও প্রতি পরিবারে একজন করে চাকরি দেওয়া হবে। এসব প্রতিশ্রুতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এবারের নির্বাচনী ইশতেহারেও রয়েছে। আমি নির্বাচিত হলে আগামী দুই বছরের মধ্যে এ কাজগুলো শেষ করবো।’

নারীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আগে সন্তান জন্মনিবন্ধনে শুধু বাবার নাম থাকতো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই সঙ্গে মায়ের নাম সংযুক্ত করা বাধ্যতামূলক করে নারীদের সম্মানিত করেছেন। ছেলেমেয়েদের উপবৃত্তির টাকা মায়ের মোবাইল নম্বরের মাধ্যমে পৌঁছে দেওয়া হয়। আগামী ৩০ ডিসেম্বর নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আপনাদেরও সম্মানিত করা উচিত।’

নির্বাচনী গণসংযোগে ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে ছিলেন নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শাহাব উদ্দিন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, চরফকিরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন লিটন, স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদের সদস্য ফখরুল ইসলাম রাহাত, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহসভাপতি নুরুল করিম জুয়েল, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিজাম উদ্দিন মুন্না প্রমুখ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত