শিরোনাম
◈ পুলিশকে স্মার্ট বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে: আইজিপি ◈ বিএনপির নেতাকর্মীদের কারাগারে পাঠানো সরকারের প্রধান কর্মসূচি: মির্জা ফখরুল ◈ উপজেলায় ভোট কম পড়ার বড় কারণ বিএনপির ভোট বর্জন: ইসি আলমগীর  ◈ আত্মহত্যা করা জবির সেই অবন্তিকা সিজিপিএ ৩.৬৫ পেয়ে আইন বিভাগে তৃতীয় ◈ কুমিল্লায় ব্যবসায়ী হত্যা মামলায় ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড, ৭ জনের যাবজ্জীবন ◈ গোপনে ইসরায়েলে অস্ত্র পাঠাচ্ছে ভারত, জাহাজ আটকে দিয়েছে স্পেন ◈ দ্বিতীয় ধাপে উপজেলা নির্বাচন: ৬১৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ৪৫৭ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন ◈ উপজেলা নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে ৭১ শতাংশ প্রার্থী ব্যবসায়ী, কোটিপতি ১১৬ জন: টিআইবি ◈ ৩ বাসে ভাঙচুর, ট্রাফিক বক্সে আগুন, গুলিবিদ্ধ ১ ◈ ঢাকা মহানগরীতে ব্যাটারি-মোটরচালিত রিকশা চললেই ব্যবস্থা: বিআরটিএ

প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল, ২০২৪, ০৮:৪৮ রাত
আপডেট : ১৯ এপ্রিল, ২০২৪, ০৮:৪৮ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

নৈরাজ্য চলতে থাকলে দেশে গৃহযুদ্ধ অনিবার্য: গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে প্রতিবাদ সভায় নুর

রিয়াদ হাসান: [২] দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক ঊর্ধ্বগতি, সড়কে মৃত্যুর মিছিল, ব্যাংকিং খাতের লুটপাটসহ চলমান নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে গণঅধিকার পরিষদ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এই প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। আদালতের জারি হওয়া গ্রেপ্তারি পরোয়ানার মধ্যেই প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন গণঅধিকার পরিষদের সভাপতি নুরুল হক নুর।

[৩] নুরুল হক নুর বলেন, ব্যাংকি খাতের লুটপাটের সাথে সরকারের এমপি মন্ত্রী, সুবিধাবাদী আমলারা জড়িত। জনগণ টের পাচ্ছে না, সরকার ব্যাংকগুলো ফাঁকা করে ফেলেছে। সরকারি দলের সাথে সংশ্লিষ্টরা নামে বেনামে শত শত কোটি টাকা লোন নিচ্ছে। এমনকি কিস্তি পরিশোধ না করে সেটাও লোন করে নিচ্ছে। এভাবে ব্যাংকগুলোতে লুট করছে। এবং এই টাকা বিদেশে পাচার করছে। যে কারণে ডলার সংকট তৈরি হচ্ছে, লুটপাটের কারণে জিনিসপত্রের দাম বাড়ছে।

[৪] তিনি বলেন, আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি কেএনএফ এই সরকারের গোয়েন্দা সংস্থা সৃষ্টি করেছে। সরকার বিভিন্ন ভাবে তাদের সহযোগিতা করেছে। এসবের সাথে ভারতের সম্পর্ক রয়েছে, ফলে ভারতের বিরুদ্ধে গিয়ে কেএনএফকে সরকার কিছু করতে পারবে না।

[৫] গণঅধিকার পরিষদের এই নেতা বলেন, ইসরায়েলের সাথে বাংলাদেশের কোন কূটনৈতিক সম্পর্ক নাই, তাহলে ঈদের মধ্যে কিভাবে ইসরায়েলের বিমান বাংলাদেশে আসলো? সরকার অবৈধভাবে ক্ষমতায় থাকতে দেশের নিরাপত্তা, স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকে ঝুঁকিতে ফেলেছে। এভাবে নৈরাজ্য চলতে থাকলে জনগণ হাতে অস্ত্র তুলে নিবে, গৃহযুদ্ধ অনিবার্য। 

[৬] গ্রেপ্তারি পরোয়ানার বিষয়ে নুরুল হক বলেন,এসব গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে আমরা ভীত নই, এই সরকারের আমলে বিরোধী দলের নেতাদের নামে এমন শত শত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা আছে। জাতীয় নির্বাচনের পর এখন স্থানীয় নির্বাচনের নামে প্রহসন করছে। জাতীয় নির্বাচনের মতো বিরোধী দলসমূহ স্থানীয় নির্বাচনও বর্জন করছে। আমরা সকলকে অনুরোধ করবো ফ্যাসিবাদের সমর্থনে কেউ নির্বাচনে অংশ নিবেন না, ভোটকেন্দ্রে যাবেন না। 

[৭] দলের সাধারণ সম্পাদক মো. রাশেদ খাঁন বলেন, এদেশের রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে গণঅভ্যুত্থান সৃষ্টি করতে হবে। এখন আর আমেরিকা- ইউরোপ কিংবা ভারত-চীনের দিকে তাকিয়ে থেকে লাভ নেই। কেউ আমাদের কিছু করে দিবেনা। যা কিছু করতে হয়, এদেশের জনগণকে সাথে নিয়েই করতে হবে।

[৮] গণঅধিকার পরিষদ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি অ্যাডভোকেট নাজিম উদ্দীনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল করিম শাকিলের সঞ্চালনায় এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন, গণঅধিকার পরিষদের উচ্চতর পরিষদের সদস্য আবু হানিফ, শাকিলউজ্জামান, আব্দুজ জাহের, সহ সভাপতি বিপ্লব কুমার পোদ্দার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান প্রমুখ। সম্পাদনা: কামরুজ্জামান

আরএইচ/কে/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়