শিরোনাম
◈ আজ স্বল্প দূরত্বের কিছু যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করবে: রেলওয়ে ◈ নাশকতাকারীদের ছাড় না দিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকদের দাবি ◈ কোটা আন্দোলনের তিন সমন্বয়কের সন্ধান মিলেছে ◈ জনমনে স্বস্তি ফিরে এলেই কারফিউ প্রত্যাহার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ◈ যে কোন সহিংস ঘটনার নিন্দা করে যুক্তরাষ্ট্র: ম্যাথু মিলার ◈ দুষ্কৃতিদের বিষয়ে তথ্য দিয়ে সহযোগিতার অনুরোধ পুলিশের ◈ ঢাকার বাইরের কারফিউ পরিস্থিতি ◈ দুষ্কৃতকারীরা যেখানেই থাকুক তাদের আইনের আওতায় আনা হবে: আইজিপি ◈ ১৮ থেকে ২০ জুলাই তিন দিনে ৯৯৯-এ সোয়া লাখ ফোন কল ◈ কতজন শিক্ষার্থী মারা গেছেন, জানতে সময় লাগবে: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত : ১১ জুলাই, ২০২৪, ০৮:১০ রাত
আপডেট : ১১ জুলাই, ২০২৪, ০৮:১০ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

মাদক মামলার তদন্তে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে: ডিএমপি কমিশনার

মাসুদ আলম: [২] ঢাকা মহানগরীতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও নগরবাসীকে নাগরিক সেবা নিশ্চিত করার পাশাপাশি চুরি প্রতিরোধে পুলিশ কর্মকর্তাদের সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করার জন্য দিক-নির্দেশনা দিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান।

[৩] বৃহস্পতিবার সকালে রাজারবাগে বাংলাদেশ পুলিশ অডিটরিয়ামে গত মে ও জুন মাসের অপরাধ পর্যালোচনা সভায় পুলিশ কর্মকর্তাদের এ নির্দেশনা দেন তিনি।

[৪] তিনি আরও বলেন, চুরি প্রতিরোধে  এলাকার নৈশ্য প্রহরী ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আনসার সদস্যদের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করতে হবে। রাত্রিকালীন টহল  ডিউটিতে থাকা পুলিশ সদস্যগণও  নৈশ্যপ্রহরীদের নিরাপত্তার বিষয়ে সচেতন করতে হবে। যে সকল চুরির ঘটনা ঘটেছে সেগুলো সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে উদঘাটন করে প্রকৃত অপরাধীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। যে সকল বাসা-বাড়িতে সিসিটিভি ক্যামেরা আছে সেগুলো সচল রাখার জন্য বাড়ির মালিকদের জানাতে হবে।

[৫] কমিশনার বলেন, মাদক উদ্ধার জনিত মামলার তদন্তে অধিক গুরুত্ব দিতে হবে। তদন্ত প্রক্রিয়ার শুরুতে জব্দতালিকা থেকে শুরু করে অভিযোগপত্র দাখিল করা পর্যন্ত সকল কাজ আইন অনুযায়ী করতে হবে। যাতে বিচার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আসামিদের সাজা নিশ্চিত করা যায়।

[৬] মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় ওয়ারেন্ট নিষ্পত্তির হার বৃদ্ধি, মামলাসমূহ দ্রুত নিষ্পত্তি ও অপমৃত্যু মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেন ডিএমপি কমিশনার।

[৭] ডিএমপির ট্রাফিক ও ক্রাইম বিভাগ দিনরাত্রি দায়িত্ব পালন করে ঢাকা মহানগরীর আইনশৃঙ্খলা ও নগরবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করায় এ দুই বিভাগকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

[৮] এর আগে ঢাকা মহানগরীর আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও জননিরাপত্তা বিধানসহ উত্তম কাজের স্বীকৃতি হিসেবে মে ও জুন মাসের অপরাধ পর্যালোচনা সভায় ডিএমপির বিভিন্ন পর্যায়ের পুলিশ সদস্যদের পুরস্কৃত করেন ডিএমপি কমিশনার।

[৯] মে ও জুন মাসের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ক্রাইম বিভাগের মধ্যে শ্রেষ্ঠ হয়েছে গুলশান বিভাগ ও তেজগাঁও বিভাগ। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব

এসবি২

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়