প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কালিয়াকৈরে মানবশূন্য গুচ্ছ গ্রাম

ফজলুল হক: [২] গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সরকার অসহায় ভিটে-মাটিহীন নাগরিকদের জন্য গড়ে তুলেছে আশ্রয়ণ প্রকল্প বা গুচ্ছ গ্রাম। সরকারি অর্থায়নে সরকারি জমিতে আধাপাকা রঙিন টিনের প্রতিটি ঘর তৈরি করতে সরকার ব্যয় করেছে প্রায় এক লক্ষ ৭১ হাজার টাকা। প্রথমদিকে ঘরগুলো পেয়ে উচ্ছাসিত ছিল ভূমিহীন এসব সাধারণ নাগরিকরা। কিন্তু দিন যত যাচ্ছে অভিযোগ ততোই বাড়ছে এসব গুচ্ছ গ্রামের বাসিন্দাদের।

[৩] বুধবার সরেজমিনে উপজেলার সাকাশ্বর এলাকার চাঁনপুর গ্রামের আশ্রয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করে জানা যায়, অসহায় ভূমিহীনদের জন্য অনেকগুলো ঘর নির্মাণ করেছে সরকার। এর মধ্যে ১৫টি ঘর উদ্বোধন করে ভূমিহীনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বহু আগেই। কিন্তু পুরো গুচ্ছ গ্রামে ১৫ টি ভূমিহীন পরিবারের মধ্যে মাত্র পাঁচটি পরিবারকে খুঁজে পাওয়া গেছে। তালাবদ্ধ রয়েছে বাকি ১০ টি সরকারি অর্থায়নে নির্মিত ঘর। ব্যবহার না করার কারণে

[৪] অবহেলায় পড়ে থাকা অব্যবহৃত ঘরগুলোর তালায় মরিচা পড়ে গেছে। স্যাঁতসেতে হয়ে গেছে ঘরগুলোর বারান্দা। দেখে বোঝার উপায় নেই ঘরগুলো জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপহার।

[৫] গুচ্ছ গ্রামে নির্মিত ঘরগুলো মানব শূন্য হয়ে যাওয়ার কারণ জানতে চাওয়া হলে বর্তমানে সেখানে বসবাস করা বাসিন্দারা জানান, শহর থেকে অনেক দূরে গুচ্ছ গ্রাম গুলো নির্মিত হওয়ায় এখানে কাজের পরিবেশ নেই। বেকার দিন পার করতে হয় খেয়ে না খেয়ে জীবন যাপন করতে হয়। আর্থিক সচ্ছলতা ফিরিয়ে আনার জন্য এখানকার অধিকাংশ ভূমিহীন পরিবার শহরের বাসা ভাড়া নিয়ে শিল্প

[৬] কারখানায় কর্ম করে জীবিকা চালাচ্ছে তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার দেওয়া ঘর গুলো কোন কাজে লাগছে না ভূমিহীন এসব সাধারণ নাগরিকদের।

[৭] কালিয়াকৈর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ জানান, প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বলা আছে যারা আশ্রযন প্রকল্পের ঘর গুলোতে থাকছে না তালিকা তৈরি করে তাদের বরাদ্ধ বাতিল করা হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত