প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]সারাদেশের রোল মডেল হবে দাউদকান্দি পৌরসভা: নাইম ইউসুফ সেইন

এইচএম দিদার:[২] ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের পাশ ও বিখ্যাত গোমতী নদীকে সঙ্গী করে গড়ে ওঠেছে দাউদকান্দি পৌরসভা।ভৌলিক দিক দিয়ে দাউদকান্দির সুখ্যাতি আছে। প্রাকৃতিকভাবে চির সবুজ বৃক্ষসহ জীব বৈচিত্র্যের নয়ানাভিরাম সৌন্দর্য্য দাউদকান্দি পৌরসভাকে করেছে আরও আকর্ষণীয়।

[৩] পৌরসভাটি বর্তমানে দ্বিতীয় শ্রেণির মর্যাদায় উত্তীর্ণ। প্রতিষ্ঠার পর থেকে বর্তমান মেয়র নাইম ইউসুফ সেইন এর আমলে সবচেয়ে বেশি উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে এ পৌরসভার আনাচেকানাচে। এমনটাই জনশ্রুতি আছে। তিনি প্রথম মেয়াদে মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে উন্নয়ন করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। রাস্তা-ঘাট ব্রীজ কালভার্ট, পাড়ামহল্লায় লিংক রোড,প্রতিটি ওয়ার্ডে সুপেয় পানির জন্য গভীর নলকূপ স্থাপন,জলাবদ্ধতা নিরসনে সুপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা তাঁর আমলেই হয়েছে। উল্লেখযোগ্য বিশ্বরোড থেকে দাউদকান্দি বাজার হয়ে মডেল থানা পর্যন্ত প্রশস্ত টেকসই রাস্তাটি তিনি প্রায় ১৪ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করে জনদুর্ভোগ লাঘব করেছেন। এমন উন্নয়নের কারণেই তিনি দ্বিতীয়বারও খুব সহজে নৌকার টিকেট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। পৌরবাসির মন জয় করে দ্বিতীয় মেয়াদে তিনি মেয়র নির্বাচিত হয়ে নতুন করে এ পৌরসভাকে ঢেলে সাজিয়ে উন্নয়ন করে একটি মডেল পৌরসভায় রুপ দিতে বদ্ধপরিকর সংকল্প করেছেন। একটি যোগপোযোগী আধুনিক পৌরসভা বিনির্মাণে তাঁর চেষ্টার কমতি নেই। আগামী পাঁচ বছরে তিনি বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প হাত দিয়েছেন।

[৪] এ বিষয়ে কথা হলে দাউদকান্দি পৌর পিতা নাইম ইউসুফ সেইন বলেন,” জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আমি উজ্জীবিত। প্রিয় মাতৃতুল্য নেত্রী বাংলাদেশ আ.লীগ এর সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমার প্রতি আস্থা ও বিশ্বাস রেখে আমাকে তিনি দুই টার্মে নৌকার প্রার্থী করেছেন। আমার এলাকার জনগণ আমাকে সেই মূল্যায়ন করেছেন বিধায় আমি মেয়র হয়েছি। আমি বাংলাদেশ আ.লীগ ও জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি চিরকৃতজ্ঞ। শেখ হাসিনা মানেই উন্নয়ন আর উন্নয়ন। ওনার সুনিপুণ হাতের পরশে আজ বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে সমাসীন হয়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে।

[৫] নেত্রীর হাত ধরে আমিও আমার এলাকায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের বার্তা পৌঁছে দিচ্ছি। আগামীর পরিকল্পনা নিয়ে তিনি বলেন, আমি যদি আগামী পছর উন্নয়নমূলক কাজ করি তাহলে কোনো কাজই অবিশিষ্ট থাকবে না, আমি আশা করি উন্নয়ন ও সৌন্দর্য্যে দাউদকান্দি পৌরসভা সারাদেশের রোল মডেল হবে।

[৬] তিনি বলেন, আমাদের মূল সমস্যা বেকারত্ব। বেকারত্ব্যের কারণে যুবসমাজ ধ্বংসের পথে পা বাড়ায়,নেশা করে। নেশার টাকা যোগান দিতে না পারলে বিপদগামী পথে তারা হাত দেয়। আমার লক্ষ এই বিশাল যুবসমাজকে বিভিন্ন কারিগরি প্রশিক্ষণ দিয়ে কাজে লাগানো। তাহলে মাদকসহ চুরি,ছিনতাই ও বিভিন্ন অপরাধ প্রবণতা ও অপকর্ম হ্রাস পাবে।

[৭] মেয়র সেইন বলেন,আমার পৌরসভায় ৯ টি ওয়ার্ড রয়েছে পর্যায়ক্রমে অপরাধ দমন করতে প্রতিটি ওয়ার্ডকে সিসিটিভি’র আয়তায় নিয়ে আসবো।সেই পক্রিয়ায় আমি ইতিবাচক। উন্নয়নমূলক কাজের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পৌরসভার প্রতিটি ধূলিকণা ও জনগণ আমার আত্মার পরম আত্মীয় হয়ে মন মণিকোঠায় ঠাঁই নিয়েছে তাই পৌরবাসির কল্যাণে পৌরসভার অবকাঠামোগত সার্বিক উন্নয়ন করা আমার ধারাবাহিক রুটিনওয়ার্ক।”

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ