প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] স্ত্রী-সন্তান রেখে প্রবাসী নারীর সঙ্গে পালালেন স্বামী, ফেসবুকে বার্তা পেয়ে ব্যবস্থা নিলো পুলিশ

সুজন কৈরী: [২] বগুড়ার দুপচাচিয়ায় এক ব্যক্তি তার দুই সন্তান ও স্ত্রীকে ফেলে আমেরিকার প্রবাসী নারীর সঙ্গে পালিয়ে যান এবং বিয়েও করেন। প্রথম স্ত্রীর অভিযোগে ওই ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। পরে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালত ওই ব্যক্তিতে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

[৩] সোমবার পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স) মো. সোহেল রানা জানান, বগুড়ার দুপচাচিয়া থেকে দুই সন্তানের জননী এক নারী বাংলাদেশ পুলিশের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইংকে বার্তা পাঠিয়ে সহযোগিতা চান। বার্তায় তিনি উল্লেখ করেন, তার স্বামী আমেরিকা প্রবাসী এক নারীর সঙ্গে অনলাইনে পরিচিত হয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এ বিষয়ে তিনি কাউকে কিছু টের পেতে দেননি। তবে ক্রমশই তার নিপীড়ন ও নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে যাচ্ছিল। এরই মাঝে একদিন তার স্বামী তাকে ও তার দুই শিশু সন্তানকে ফেলে চলে যান।

[৪] বার্তায় ওই নারী উল্লেখ করেন, খোঁজ নিয়ে তিনি জানতে পারেন আমেরিকা প্রবাসী সেই বাংলাদেশি নারী বর্তমানে দেশে অবস্থান করছেন। তার স্বামী ওই প্রবাসী নারীকে বিয়ে করেছেন। দুই শিশু সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তিনি। বাধ্য হয়ে দুই সন্তানসহ গ্রামের বাড়ি দুপচাচিয়ায় বাবা-মায়ের কাছে আশ্রয় নিয়েছেন।

[৫] সোহেল রানা বলেন, বার্তায় ওই নারী স্বামীকে ফিরে পেতে পুলিশের কাছে সহযোগিতা চান। বার্তা পেয়ে তাকে মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং জানায়, পুলিশ তার পাশে বন্ধুর মতো থাকবে এবং তার সমস্যা সমাধানের সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে। এরপর বার্তাটি নওগাঁ সদর থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম জুয়েলকে পাঠিয়ে এ বিষয়ে ওই নারী ও তার সন্তানদের আইনসম্মত অধিকার নিশ্চিত করার জন্য নির্দেশনা ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেয় মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং।

[৬] এআইজি সোহেল রানা বলেন, ওই নারীর ইচ্ছা অনুযায়ী, তার স্বামী আমেরিকা প্রবাসী কথিত সেই নারীকে ইতোমধ্যে বিয়ে না করে থাকলে তাকে তার স্ত্রী ও সন্তানদের কাছে ফিরিয়ে আনতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে বলে আশ্বাস দেয় মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং। বার্তাটি পেয়ে আন্তরিকতার সঙ্গে ওই নারীর পাশে দাঁড়ান নওগাঁ সদর থানার ওসি।

[৭] প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়, ওই স্বামী আমেরিকা প্রবাসী নারীকে ইতোমধ্যে বিয়ে করেছেন। তিনি কোনোভাবেই প্রথম স্ত্রী ও সন্তানদের কাছে ফিরবেন না। এ তথ্য জেনে ভুক্তভোগী স্ত্রী অভিযোগ দায়েরের ইচ্ছা ব্যক্ত করেন। পরে ভুক্তভোগী নারী তার ও তার সন্তানদের ওপর করা নির্যাতন ও নিপীড়নের কথা উল্লেখ করে প্রাসঙ্গিক প্রমাণাদি উপস্থাপন করে নওগাঁ সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এরই প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করা হয়। পরে তাকে আদালতে সোর্পদ করা হলে আদালত জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত