প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আনু মুহাম্মদ: ২০১৬ সালের মতো এবারও বাঁশখালী কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে খুন ও জখম হয়ে যাওয়া পরিবারগুলোর ওপর নানা রকম হয়রানি চলছে

আনু মুহাম্মদ: ন্যায্য পাওনা দাবি করার অপরাধে শ্রমিকদের খুন করা হয়েছে দুর্নীতি ও অনিয়মে ভরা বন্দুকের নলের ওপর দাঁড়ানো প্রাণবিনাশী বাঁশখালী কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে। অপরাধী এসআলম গ্রুপ ও চীনা কোম্পানি আর তাদের সহযোগী পুলিশ ও সন্ত্রাসী বাহিনী। আর সেই খুন হয়ে যাওয়া শ্রমিকের চাচা প্রকৌশলী শাহনেওয়াজ চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ফেসবুকে একটা স্ট্যাটাস লেখার জন্য। এখন পর্যন্ত খুনের জন্য কেউ গ্রেপ্তার হয়নি, মামলাও না। উল্টো ২০১৬ সালের মতো এবারেও খুন জখম হয়ে যাওয়া পরিবারগুলোর নানা রকম হয়রানি চলছে। তারই একটি নমুনা ডিজিটাল নিরাপত্তা (হীনতা) আইন দিয়ে শাহনেওয়াজের গ্রেপ্তার।

যাই হোক যে স্ট্যাটাসের জন্য তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তা সবার জানা দরকার। আমি তার সঙ্গে পূর্ণ সংহতি  জ্ঞাপন করছি : ‘ব্রেকিং নিউজ : টুয়েল্ভ মার্ডারের (১২ খুনের) পরিবেশ বিধ্বংসী কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রের কারণে বাঁশখালীর মানুষ মনে করেছিলো, গন্ডামারা ইউনিয়ন উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে। দেশের মানুষ প্রকৃতপক্ষে দেখতে পাচ্ছে, গণ্ডামারাবাসী জোয়ারের পানিতে হাবুডুবু খাচ্ছে। বাঁশখালীর তরুণ ও যুবসমাজকে সাহসী লেখনীর মাধ্যমে অন্যায়ের বিরুদ্ধে এবং উন্নয়নের পক্ষে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে নির্ভয়ে।’ লেখক : শিক্ষক, অর্থনীতি বিভাগ, জাবি। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত