প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সাহিনুদ্দিনকে হত্যার পর কিলার সুমন সাবেক এমপি আউয়ালকে ফোনে জানায় ‘স্যার ফিনিশ’: র‌্যাব

মাসুদ আলম: [২] বৃহস্পতিবার কারওয়ান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে বাহিনীটির লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, পল্লবীতে জমি সংক্রান্ত দ্বন্দ্বের জেরে সাহিনুদ্দিন নামে একজনকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় বুধবার রাতে ভৈরব থেকে সাবেক সংসদ সদস্য এম এ আউয়ালকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। এছাড়া চাঁদপুর থেকে হাসান ও পটুয়াখালী থেকে মো. জহিরুল ইসলাম বাবুকে গ্রেপ্তার করা হয়।

[৩] তিনি আরও বলেন, ঘটনার ৪-৫ দিন আগে মূল পরিকল্পনাকারী, নির্দেশদাতা ও মামলার প্রধান আসামি আউয়ালের কলাবাগান অফিসে আবু তাহের ও সুমন হত্যাকাণ্ডের চূড়ান্ত পরিকল্পনা করে। বিষয়টি বাস্তবায়নের দায়িত্ব দেয়া হয় সুমনকে। সুমনের নেতৃত্বে প্রায় ১০-১২ জন কিলিং মিশনে অংশ নেয়। গত ১৫ মে সুমন, বাবুসহ হত্যাকাণ্ডে অংশগ্রহণকারী বেশ কয়েকজন পরামর্শ করে। সে অনুযায়ী ১৬ মে বিকেলে তারা ঘটনাস্থলে জড়ো হয়। এরপর তাদের ডাকে সন্তানকে নিয়ে ঘটনাস্থলে যান সাহিনুদ্দিন।

[৪] তিনি বলেন, প্রথমে সুমন, মনির, মানিক, হাসান, ইকবাল ও মুরাদসহ ১০-১২ জন ধারালো অস্ত্র দিয়ে সাহিনুদ্দিনকে এলোপাতাড়ি আঘাত করতে থাকে। ঘটনার শেষ পর্যায়ে শরীরের ওপরের অংশে মনির এবং হাঁটু ও হাত-পায়ে কুপিয়ে মানিক মৃত্যু নিশ্চিত করে। এরপর সাবেক এমপি আউয়ালের মোবাইলে ফোন করে সুমন বলে, ‘স্যার ফিনিশ।

[৫] তিনি মঈন বলেন, আউয়াল একজন আবাসন ও জমি ব্যবসায়ী। তার ছত্রচ্ছায়ায় সুমনের সন্ত্রাসী গ্রুপ এলাকায় জমি দখল ও আধিপত্য বিস্তার করত। এজন্য তারা মাসে ১০-১২ হাজার টাকা মাসোয়ারা এবং ক্ষেত্রবিশেষে কাজ অনুযায়ী অতিরিক্ত টাকা পেত।

[৬] এদিকে বুধবার গভীর রাতে পল্লবী ও যাত্রাবাড়ীর রায়েরবাগ এলাকা থেকে সাহিনুদ্দিনকে হত্যায় জড়িত অপর দুইজনকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশের মিরপুর বিভাগ । গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- সুমন বেপারী ও রকি তালুকদার।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত