প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভারতের নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা হওয়া উচিত, তীব্র ক্ষোভ মাদ্রাজ হাইকোর্টের 

সুমাইয়া ঐশী:[২]ভোট গণনা বন্ধ করে দেওয়ার হুঁমকি দিলেন আদালত।

[৩] করোনার মধ্যেও নির্বাচনকে ঘিরে হাজার হাজার মানুষের জমায়েত হয়েছে। আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জনসভা এবং শোভাযাত্রা করেছেন বহু প্রার্থী। আগামী ২ মে শুরু হবে ভোটগণনা। ঐদিনও স্বাস্থ্যবিধি না মেনে সংক্রমণের ঝুঁকি যাতে না বাড়ে সেজন্য জনস্বার্থে মামলা করা হয় আদালতে। সোমবার এর শুনানিতে এমন মন্তব্য করেন মাদ্রাজ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়। এনডিটিভি

[৪] এদিন নির্বাচন কমিশনকে তীব্র ভর্ৎসনা করেন সঞ্জীব। ভোট গণনায় স্বাস্থ্যবিধি মানতে কী ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে তা আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যে জানাতে হবে আদালতকে। এরপর আদালত উচিত মনে করলে ভোট গণনা চলবে। নতুবা বন্ধ করে দেওয়া হবে ভোট গণনা। আনন্দবাজার

[৫] সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এ মুহূর্তে জীবনটা সবার আগে। প্রাণে বাঁচলে তারপর তো গণতন্ত্রের অধিকার ভোগ করবেন। তা না করে মানুষ দলে দলে সভা-সমাবেশ করেছেন, তখন কি নির্বাচন কমিশনের কর্তৃপক্ষ ভিনগ্রহে ছিলেন? তিনি আরও বলেন, কমিশনের এই দায়িত্বজ্ঞানহীনতা মেনে নেওয়া যায় না। আপনাদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা হওয়া দরকার। সম্পাদনা: আসিফুজ্জামান পৃথিল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত