প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সিডনিতে বৈশাখী আড্ডা

আকিদুল ইসলাম, সিডনি: প্রবাস এখন আর প্রবাস নেই। প্রবাস মানেই এখন একটি ছোট বাংলাদেশ। প্রশান্ত মহাসাগরের দেশ অস্ট্রেলিয়াতে ধীরে ধীরে বড় হচ্ছে বাঙালি কমিউনিটি। সেই সাথে বাড়ছে বাংলা ভাষা, শিল্প ও সংস্কৃতির বিকাশ এবং চর্চা। ফাগুন হাওয়া আয়োজিত ‘ডাটা ফেয়ার বৈশাখী আড্ডা ১৪২৮’ ছিল এই বছরের সিডনির সবচেয়ে বড় বৈশাখী উৎসব ।বাঙালি ঐতিহ্যকে মাথায় রেখে পুরো অনুষ্ঠান সাজানো হয়েছিল।

অডিটোরিয়াম উপচে পড়া প্রবাসি বাঙালিরা উপস্থিত হয়ে উপভোগ করেন মনোজ্ঞ অনুষ্ঠান।প্রায় চার ঘন্টার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন বাসব রায়, মাসুদা জাহান ছবি ও অনুরিতা মজুমদার।

পুরো অনুষ্ঠানে ছিল নাচ, গান, কবিতা আবৃত্তি ও বাঙালি সংস্কৃতির প্রদর্শণ। নাচে অংশগ্রহন করেন মৌসুমী সাহা ও তার দল, আনুভা, আদ্রিতা রায়। কবিতা আবৃত্তি করেন -আকিদুল ইসলাম, ফাইজুন নাহার পলি, দেবী সাহা, পুরবী পারমিতা ঘোষ, মোশতাক আহমেদ ও আরিফুর রহমান। রবীন্দ্র সংগীত পরিবেশন করেন পলাশ্রী রায়।দেহতত্ত্ব গানে মন মাতিয়েছিলেন নামিদ ফরহাদ এবং আয়েশা কলি, সবশষে সিডনির নামকরা ব্যান্ড দল ‘কৃষ্টি’ পরিবেশনা করে বৈশাখী ও বাংলাদেশের জনপ্রিয় গান।

অনুষ্ঠানে গরম গরম ইলিশ মাছ ভ্যেনুতে ভেজে পরিবেশন করা হয়।এছাড়াও হরেক রকম পিঠা, মিস্টি, দধি, চিড়া, খই, নাড়ু, মুরি মুডকী মোরালী, ফুসকাসহ বাংলাদেশী মজাদার ও ঐতিহ্যপূর্ণ বিভিন্ন খাবারের সমাহার ছিল।

বৈশাখী আড্ডায় আগত অতিথিদের আনন্দ এবং বৈশাখীর সৌন্দর্য ও পরিপূর্ণ আমেজ ফুটিয় তোলার জন্য হলের সামনে স্টল বসানো হয়। যেখানে বাচ্চাদের খেলনা ও বড়দের বিভিন্ন বাঙালি পোষাক বিক্রি করা হয়।বৈশাখী আড্ডার বিশেষ আকর্ষণ অতিথিদের জন্য Raheel’s make-up worlds এর পক্ষ্য থেকে ফ্রি পানের ব্যবস্হা ছিল।

ফাগুন হাওয়ার সভাপতি তিশা তাসমিম তানিয়া বলেন ‘ফাগুন হাওয়া’ একটি অরাজনৈতিক এবং সকলের জন্য উন্মুক্ত প্রতিষ্ঠান। আমাদের বাঙালি ঐতিহ্য কৃষ্টি ও কালচারের সাথে সব দেশের মানুষকে পরিচিত করাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য।
সর্বশেষ ফাগুন হাওয়ার সাধারন সম্পাদিকা

সাজেদা আক্তার সানজিদা আগামী বছরে আবার বৈশাখী আড্ডা করার আশা ব্যক্ত করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত