প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সাভারে জেল ফেরত আসামি ও নারী শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

মাসুদা ইয়াসমিন: [২] ঢাকার সাভারে পৃথক স্থান থেকে জেল ফেরত এক আসামির ভাসমান এবং নারী শ্রমিকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার সীমান্তবর্তী আশুলিয়ার মরাগাং এলাকার তুরাগ নদ এবং শুক্রবার সকালে তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের জোরপুল এলাকা থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়েছে।

[৩] থানা পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার আশুলিয়া ও টঙ্গীর সীমান্তবর্তী তুরাগ নদে ভাসমান অবস্থায় আতাউর রহমান হারুন নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। শনিবার সকালে নিহতের মরদেহটি টঙ্গী নৌ পুলিশ ফাঁড়ি থেকে ময়না তদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

[৪] নিহত আতাউর রহমান হারুন সিলেট জেলার মৃত আশিকুর রহমানের ছেলে। তিনি গাজীপুরের টঙ্গী থানাধীন ট্যাংপাড়া এলাকায় শ্বশুড় বাড়িতে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন।

[৫] আশুলিয়া থানা ও টঙ্গী নৌ পুলিশ জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় তুরাগ নদে অজ্ঞাত ওই ব্যক্তির মরদেহ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে আশুলিয়া থানা পুলিশ ও টঙ্গী নৌ পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌছায়। পরে রাত সাড়ে ১২টার দিকে মরদেহের প্রাথমিক সুরতহাল শেষে টঙ্গী নৌ ফাঁড়িতে নেয়া হয়। এসময় মরদেহের পকেটে থাকা মোবাইল সিম ও মানিব্যাগ থেকে নিহতের পরিচয় সনাক্ত করা হয়। এরপর শনিবার সকালে মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

[৬] টঙ্গী নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুজন কুমার পন্ডিত নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে বলেন, শুক্রবার নিহত আতাউর রহমান হারুন তার স্ত্রীকে ফোন করে ছেলে-মেয়েকে দেখে রাখতে বলেছিল। এসময় নিহতের শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন না থাকায় প্রাথমিকভাবে সে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে আমরা ধারণা করছি। এছাড়া সে সম্প্রতি জেল থেকে ছাড়া পেয়েছিল এরকম তার পরিবারের কাছে শুনেছি। তবে আমরা বিষয়টি যাচাই করছি এবং এঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

[৭] অন্যদিকে শুক্রবার সকালে উপজেলার তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের জোরপুল এলাকায় একটি শ্রমিক কলোনী থেকে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় স্থানীয় একটি তৈরী পোশাক কারখানার এক নারী শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করে নিহতের মরদেহটি ময়না তদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অপূর্ব দাস। সম্পাদনা: সাদেক আলী

 

সর্বাধিক পঠিত