প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পুলিশকে জবাই করে হত্যার চেষ্টায় দুই ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার

রাজু চৌধুরী : [২] অস্ত্রসহ গুলিবিদ্ধ ২ জন ছিনতাইকারীকে আটক করেছে আকবরশাহ্ থানা পুলিশ। এই সময় ছিনতাইকারীর হামলায় ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

[৩] শুক্রবার (২৬ মার্চ) সিএমপির জনসংযোগ কর্মকর্তা এডিসি ডিবি (দক্ষিণ) শাহ মুহাম্মদ আবদুর রউফ জানান, বৃহস্পতিবার রাতে একটি ছিনতাই মামলার সূত্র ধরে মোঃ আরিফ হোসেন, সহকারী পুলিশ কমিশনার (পাহাড়তলী জোন) এবং আকবরশাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ জহির হোসেন এর নেতৃত্বে একটি টীম অস্ত্রসহ গুলিবিদ্ধ দুই ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করেন।

[৪] অভিযানের ব্যাপারে এসি মোঃ আরিফ (পাহাড়তলী জোন) জানান, সম্প্রতি আকবরশাহ থানা এলাকার কর্ণেলহাট ও পাহাড়িকা সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনের সামনে সংঘটিত ছিনতাইয়ের ঘটনায় রুজুকৃত মামলার আসামীদের গ্রেপ্তারে একেখান থেকে ফয়েস’লেক মোড় পর্যন্ত প্রধান সড়কে এসআই(নিঃ) ইসমাইল হোসেনের নেতৃত্বে অন্যান্য অফিসার অবস্থানকালে একটি সিএনজি সন্দেহজনকভাবে ঘোরাঘুরি করলে কর্তব্যরত পুলিশ সিএনজিটিকে দাঁড়ানোর সংকেত দেয়। সংকেত অমান্য করে সিএনজিটি দ্রুত গতিতে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ সিএনজিটিকে ধাওয়া করে।

[৫] সিএনজিটি চট্টগ্রাম মহানগরীর জাকির হোসেন রোড, আমবাগান, পাহাড়তলী, ভেলুয়ারদিঘীর পাড় এলাকায় পৌঁছালে পুলিশ সিএমপি কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে নগরীর বিভিন্ন চেকপোষ্টে সিএনজিটি আটকের জন্য সাহায্য চায়। একপর্যায়ে খুলশী থানাধীন আমবাগান রেলক্রসিং সিগন্যালে সিএনজিকে ধাওয়া করা পুলিশ সদস্যরা কিন্তু কৌশলে সিএনজিটি পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

[৬] আরিফ হোসেন আরো জানান, রেজিস্ট্রেশন নম্বরের সূত্র ধরে সিএনজি’র মালিক’কে এবং ঈশান মহাজন রোডের ছোট কালী বাড়ি দাশ বাড়ীর সামনে ঐ সিএনজি’র গ্যারেজের সন্ধান পাওয়ার পর পুলিশ গ্যারেজের আশপাশে অবস্থান নেয় এবং ওৎ পেতে থাকে রাত অনুমান দশটার কিছু সময় পর সিএনজিটিকে গ্যারেজে প্রবেশ করতে দেখে ওত পেতে থাকা এসআই সুফল কুমার দাশ সিএনজিটির ড্রাইভার এবং সঙ্গীকে চ্যালেঞ্জ করলে ছিনতাইকারী সিএনজির ড্রাইভার ইমাম হোসেন ইমন(৪০) ও তার সহযোগী মোঃ আরাফাত হোসেন সুমন(৩৫) এসআই সুফল কুমার দাশ’কে আক্রমণ করে মাটিতে ফেলে ধাঁরালো ছুরি দিয়ে জবাই করতে চেষ্টাা করে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত